আজ: শনিবার, ২২ জুন ২০২৪ইং, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ জুন ২০১৬, মঙ্গলবার |

kidarkar

আস্থাসংকটে বিক্রয় চাপ বেশি

bazarশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচকের টানা পতন চলছেই। এরই ধারাবাহিকতায় আজও ডিএসই-তে সূচক ৫ পয়েন্ট এবং সিএসই-তে সূচক ১২ পয়েন্ট কমেছে। আর এ নিয়ে টানা চার কার্যদিবস ধরে সূচক পড়ছে। পাশাপাশি বেশ বড় কিছু খাতে দর পতন ঘটে। এগুলো হলো: সেবা ও আবাসন, প্রকৌশল, জ্বালানী ও বিদ্যুৎ এবং ওষুধ ও রসায়ন খাতে বেশ পতন লক্ষ করা যায়।

আজ দেশের পুঁজিবাজারে বেশ বিক্রয় চাপ লক্ষ করা যায়। ইকুইটি সেক্টরগুলো ভাল অবস্থানে না থাকার কারনে নির্মাণ সামগ্রী ও জ্বালানী  স্টকের মূল্য পড়ে যায়। অর্থনীতির প্রধান খবর হল ব্যাক্তি খাতে বিনিয়োগ হ্রাসের কারনে অর্থমন্ত্রী, অর্থনীতিবীদ ও ব্যাবসায়ী একই ভাবে সবাই গভিরভাবে চিন্তিত। কিন্তু পরিকল্পনামন্ত্রী মোস্থফা কামাল বলেছেন বর্তমান বিনিয়োগে দেশের অর্থনীতি উচ্চাহারে বৃদ্ধি পেতে পারে। তিনি সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ভিয়েতনাম ও ফিলিপিন্সের দৃষ্টান্ত টেনে আনেন। তারা ২২ থেকে ২৮ শতাংশ জিডিপি অর্জন করে।

এদিকে, বিদেশী বিনিয়োগ বাড়াতে ভারত ব্যাপক আইনি সংস্কার করেছে। এতে বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগে বাধা আসতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বাজার বিশ্লেষণ: সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতনে শেষ হয় লেনদেন। এদিন শুরুতে কিছুটা নিম্নমুখী থাকলেও ২০মিনিট পর উত্থানে ফিরে বাজার এবং প্রথম ঘন্টায় মাথায় ফের পড়তে থাকে। মঙ্গলবার সূচকের পাশাপাশি কমেছে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কিছুটা কমেছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩২৮ কোটি টাকা।

মঙ্গলবার দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪৩৬৩ পয়েন্টে। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ০.৬১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১০৭৫ পয়েন্টে এবং ডিএসই–৩০ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭১০ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১৮ কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১২৩ টির, কমেছে ১৩৮ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৭ টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৩২৮ কোটি ৪২ লাখ ৯৪ হাজার টাকার শেয়ার।

এর আগে সোমবার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ১৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪৩৬৯ পয়েন্টে। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১০৭৫ পয়েন্টে এবং ডিএসই–৩০ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৭১২ পয়েন্টে। ওই দিন লেনদেন হয়েছিল ৩২৮ কোটি ৩৪ লাখ ৯৩ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৮ লাখ টাকা।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ সূচক ১২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৮১৬৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৪৪ টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর ১০৪ টির, কমেছে ১০৩ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭ টির। আজ সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ১৯ কোটি ৯৬ লাখ টাকা ৭৪ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.