আজ: শনিবার, ২২ জুন ২০২৪ইং, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ জুন ২০১৬, মঙ্গলবার |

kidarkar

সিরিজে ফিরলো ভারত

Indiaশেয়ারবাজার ডেস্ক: জিম্বাবুয়েকে গুড়িয়ে দিয়ে সিরিজে ফিরলো ভারত। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে মাত্র ২ রানে হারে ভারত। কিন্তু হারারে স্পোর্টস ক্লাবে দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিকদের ১০ উইকেটে হারিয়ে সমতায় ফিরলো সফরকারীরা।

টি-টোয়েন্টিতে এই প্রথম কোনো দলকে ১০ উইকেটে হারালো ভারত। এর আগে এ বছর তারা শ্রীলঙ্কা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতকে সর্বোচ্চ ৯ উইকেটে হারায়। এদিন টস হেরে আগে ব্যাটে গিয়ে ভারতের বোলিং তোপে পড়ে জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা। ৯ উইকেটে তারা ৯৯ রান তুলতে পারে। সর্বোচ্চ ৩১ রান আসে পিটার মুরের ব্যাট থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪ রান করেন ম্যালকম ওয়ালার।

জিম্বাবুয়ের ৬ ব্যাটসম্যানের রান এদিন দুই অংকের কোঠা পার হয়নি। শুরুতেই চাপে পড়ে জিম্বাবুয়ে। ভারতের হয়ে এদিন দুই প্রান্ত থেকে আক্রমণ শুরু করেন বারিন্দর সরণ ও ধবল ধাওয়াল কুলকারনি। এদিন এই দু’জনেরই আন্তর্জাতিক টি-টোয়ন্টিতে অভিষেক হয়। এই প্রথম দুই অভিষিক্ত বোলার দিয়ে ইনিংস শুরু করে ভারত। শুরুতেই দুর্দান্ত করেন তারা।

সানরাইজার্স হাদরাবাদের পোসর বারিন্দর ১০ রানে নেন ৪ উইকেট। টি-টোয়েন্টি অভিষেকে এটি দ্বিতীয় সেরা বোলিং ফিগার। আর সব মিলিয়ে টি-টোয়েন্টিতে ভারতের হয়ে দ্বিতীয় সেরা বোলিং ফিগার এটি। এদিন ইনিংসের পঞ্চম ওভারের দ্বিতীয়, পঞ্চম ও ষষ্ঠ বলে তিন উইকেট নেন সরণ। টি-টোয়েন্টিতে ভারতের হয়ে এক ওভারে তিন বা তারচেয়ে বেশি উইকেট নেয়ার দ্বিতীয় ঘটনা এটি।

সর্বপ্রথম ২০১২ সালে পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এক ওভারের ৩ উইকটে নেন অশোক দিন্দা। এছাড়া এদিন জসপ্রিত বুমরাহ ১১ রানে নেন ৩ উইকেট। ভারতীয় বোলারদের এমন তা-বের পর উদ্বোধনী দুই ব্যাটসম্যান দেখান আরও দৃঢ়তা।

লোকেশ রাহুল ও মন্দ্বীপ সিং ৪১ বল হাতে রেখে ভারতের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন। মন্দ্বীপ ১ ছক্কা ও ৬ চারে ৪০ বলে ৫২ এবং রাহুল ২ ছক্কা ও ২ চারে ৪০ বলে ৪৭ রানে অপরাজিত থাকেন। সিরিজ নির্ধারনী তৃতীয় ম্যাচ বুধবার একই মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/সো

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.