আজ: মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২ইং, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১০ জুলাই ২০১৬, রবিবার |


kidarkar

বাংলাদেশেও বন্ধ হচ্ছে পিস টিভির সম্প্রচার


peace tv and zakir naikশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাংলাদেশেও বন্ধ হচ্ছে পিস টিভি’র সম্প্রচার। এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তথ্য মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তথ্যমন্ত্রী বলেন, এ টিভি সম্পর্কে কিছু অভিযোগ আমাদের নজরে এসেছে এবং তা খতিয়ে দেখা হবে। শিগগিরি এ সম্পর্কে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করা হবে।

এছাড়া, ঢাকা সহ বেশ কয়েক যায়গা থেকে খবর পাওয়া গেছে আলোচিত এ টিভি চ্যানেলটি এখন আর দেখা যাচ্ছে না। তবে কেবল অপরেটরদের সংগঠন বাংলাদেশ ক্যাবল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের (কোয়াব) সভাপতি মীর হোসেন আখতার জানান, তারা চ্যানেলটি বন্ধ করে দিতে চাচ্ছেন এবং সরকারের নির্দেশনার অপেক্ষায় রয়েছেন।

কবে নাগাদ পিস টিভির বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, রোববার (১০ জুলাই) সকল অফিস খুলবে। তারপর আমরা এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। কোয়াব সভাপতি মীর হোসেন জানান, তারা এ বিষয় নিয়ে তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। মন্ত্রী দুই-একদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত দেবেন বলে তাদের জানিয়েছেন।

সাম্প্রতিক গুলশান হামলায় জড়িতদের অন্তত দুজন ‘বিনামূল্যের এই টিভি চ্যানেলটি’ দেখে জাকির নায়েকের বক্তব্যের মাধ্যমে জঙ্গিবাদে প্ররোচিত হয়েছিল বলে প্রকাশ পেয়েছে। মুসলিম প্রধান দেশ মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশেই বিতর্কিত এই ইসলামী বক্তা জাকির নায়েকের বক্তব্য প্রচার নিষিদ্ধ। জাকির নায়েকের দেশ ভারতও তাকে নিষিদ্ধের কথা ভাবছে।

পিস টিভি জাকির নায়েক পরিচালিত মুম্বাইভিত্তিক ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের একটি প্রতিষ্ঠান। এ টিভিতে ধর্ম নিয়ে আলোচনায় ইসলামের যে ব্যাখ্যা তিনি দেন, তা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে বিভিন্ন সময়ে। ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে জাকির নায়েকের ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন যুক্তরাজ্য ও কানাডায় নিষিদ্ধ। এমনকি মুসলিম প্রধান মালয়েশিয়াতেও জাকির নায়েকের বক্তব্য প্রচারের অনুমতি নেই।

জাকির নায়েকের কথায় প্ররোচিত হয়ে ভারতের কয়েক তরুণ আইএসে যোগ দিতে সিরিয়ায় পাড়ি জমিয়েছেন বলেও খবর বেরিছে। এ বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর জাকির নায়েকের বিষয়ে উদ্যোগী হয়েছে ভারত সরকার। জঙ্গিবাদে উৎসাহ জোগানের অভিযোগ নিয়ে এরইমধ্যে তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে মহারাষ্ট্র সরকার। মুম্বাইয়ে তার অফিস ঘিরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ভারতের সম্প্রচারমন্ত্রী বেঙ্কাইয়া নাইডু শুক্রবার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, আমরা অভিযোগ তদন্ত করছি। কারণ এটা আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা, সেই সঙ্গে সামাজিক সম্প্রীতির জন্যও হুমকি। মালয়েশিয়াসহ যে সব দেশ নিষিদ্ধ করেছে, তাদের পদক্ষেপগুলোও খতিয়ে দেখা যাচ্ছে বলে জানান ভারতের এই মন্ত্রী।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.