আজ: শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৪ জুলাই ২০১৬, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

এমন দুঃসাহসী কান্ড দেখে সত্যিই গা শিউরে ওঠে! (ভিডিও)

Picture1468460067শেয়ারবাজার ডেস্ক: এমন দুঃসাহসী কান্ড দেখে সত্যিই গা শিউরে ওঠে! একদিকে দুঃসাহসী  হওয়া  যেমন ভীষণ ঝুঁকিপূর্ণ, অন্যদিকে সুবিধাটা হচ্ছে, খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা পাওয়া যায়।

বিশেষ করে স্যোশাল মিডিয়ার এ যুগে রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তারকা খ্যাতি পেতে তরুণদের মধ্যে দুঃসাহিসক সব কাজ করার প্রবণতা বাড়ছে।

সাম্প্রতিক সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে ওঠা দুঃসাহসিক কাণ্ডের তেমনই কয়েকটি ঘটনা জেনে নিন।

 

মৃত্যু ঝুঁকির লাফ

২৪ বছর বয়সী ব্রিটিশ তরুণ ম্যাক্স কাভ সম্প্রতি যে দুঃসাহসিক কাণ্ড করে দেখাল, এর জন্য তাকে সাধুবাদ দেওয়া উচিত নাকি বকা দেওয়া উচিত, সেই দ্বিধাদ্বন্দে রয়েছে সকলে। কেননা সম্প্রতি ম্যাক্স কাভ হংকংয়ের ২৫ তলা একটি আবাসিক ভবনের মাত্র ১৫ সেন্টিমিটার প্রশস্ত রেলিং দিয়ে দৌড়ে পাশের আরেকটি আবাসিক ভবনের ছাদের রেলিংয়ে লাফ দিয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। যা রীতিমতো অবিশ্বাস্য। কারণ পদে পদে মৃত্যু ঝুঁকি। ২৫ তলার বিল্ডিং খুবই উচু এবং সেই বিল্ডিংয়ের রেলিংয়ে উঠে দাড়ানোটাই দুঃসাহসিক ব্যাপার। তার ওপর ম্যাক্স কাভ এমন এক বিল্ডিংয়ের রেলিংয়ে উঠেছে, যা কিনা মাত্র ১৫ সেন্টিমিটার চওড়া এবং এতো সরু রেলিং দিয়ে দৌড়ের পর চেয়ে এর চেয়েও দুঃসাহসিক কাণ্ডটি হচ্ছে, পার্শ্ববতী যে বিল্ডিংয়ের রেলিংয়ে লাফ দিয়েছে সেটিও মাত্র ১৫ সেন্টিমিটার চওড়া!

ইনস্টাগ্রামে তার এই দুঃসাহসিক কাণ্ডের ভিডিওটি দেখা হয়েছে আড়াই লাখেরও বেশি সংখ্যকবার। ইউটিউবেও বিভিন্ন চ্যানেলে এই ভিডিওটি লক্ষাধিকবার দেখা হয়েছে। ম্যাক্স কাভের দুঃসাহসিক সেই লাফ নিজের চোখেই দেখে নিন।

 

নিরাপত্তা সামগ্রী ছাড়াই আইফেল টাওয়ারে আরোহন

রাশিয়ার তিন তরুণ সম্প্রতি কোনো প্রকার নিরাপত্তা সামগ্রী ছাড়াই ফ্রান্সের সুউচ্চ টাওয়ার হিসেবে পরিচিত আইফেল টাওয়ারে আরোহন করার মতো দুঃসাহসিক কাণ্ড ঘটিয়েছে। ইভান কাজনেটসভ, ইভান সেমেনোভ এবং অ্যালিহ্যান নামক এই তিন তরুণ আইফেল টাওয়ারের প্রবেশ টিকেটে কিনে এরপর টাওয়ারের একটি ছোট খাদের ভেতর লুকিয়ে পড়ে এবং পরদিন ভোর ৫টার দিকে নিরাপত্তারক্ষীদের নজরদারি একটু শিথিল হলে, তারা ১০৬৩ ফুট উচ্চতার এই টাওয়ারে খালি হাতে আরোহন করে। পাশাপাশি বডি ক্যামেরা ও ড্রোনের সাহায্যে তারা তাদের এই দুঃসাহসিক কাণ্ডের ভিডিও ধারণ করেছে।

 

ভিডি

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.