আজ: বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ইং, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৮ জুলাই ২০১৬, বৃহস্পতিবার |

kidarkar

অনশন ভেঙে বিয়ের ঘোষণা!

106430_400x400_IMAGE55314319শেয়ারবাজার ডেস্ক: ১৬ বছর ধরে অনশনে থাকা মনিপুরের শর্মিলা অনশন ভাঙার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি আদালতে নিয়মিত হাজিরার সময় সম্প্রতি বিচারককে জানিয়েছেন, আর অনশন নয়। এ বার তিনি অনশন ভেঙে বিয়ে করবেন। তারপর লড়বেন নির্বাচনে।

২০০০ সালে মণিপুরের মালোম গ্রামে জঙ্গি সন্দেহে দশ নিরীহ গ্রামবাসীকে হত্যার প্রতিবাদে ও ভারতীয় সেনাদের দায়মুক্তি আইন (আফসপা) প্রত্যাহারের দাবিতে অনশন শুরু করেছিলেন এই মনিপুরি নারী। তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল ২০০৬ সালে। গত নয় বছর ধরেই প্রতি ১৫ দিন পর জেল হেফাজতে হাসপাতালে থেকে তাকে আদালতে আনা হয়।

৪৪ বছর বয়সী এই নারী বলেছেন, আগামী ৯ই অগস্ট, পরবর্তী শুনানির শেষে হাসপাতালে ফিরে ফলের রস খেয়ে এতদিনের অনশন শেষ করবেন। আরো জানান, বিয়ে করতে চলেছেন তিনি।

আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের তিনি জানান, এতদিন অহিংস আন্দোলনের রাস্তায় হেঁটেও তিনি রাজ্য বা কেন্দ্র সরকারের কাছ থেকে কোনও কিছুই আদায় করতে পারলেন না। এবার তাই অনশন ভেঙে আগামী বছর বিধানসভা নির্বাচনে লড়বেন। পূর্ব ইম্ফলের খুরাই থেকে প্রার্থী হবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

শর্মিলা বলেন, ভোটেও আমার বিষয় একটাই, আফসপা প্রত্যাহার। শর্মিলা বলেছেন, আমি যদি নির্বাচনে হারি, মানুষ যদি আমায় গ্রহণ না করেন, ক্ষতি নেই। তবুও আর অনশনের রাস্তায় যাব না। ডেসমন্ডকে বিয়ে করব। আপাতত গোয়ার বাসিন্দা, ব্রিটিশ নাগরিক ডেসমন্ড কুটিনহোকে বিয়ে করতে চান তিনি। দু’বছর আগে ডেসমন্ড তাঁর সঙ্গে দেখা করতে এলে আদালত চত্বরে ও হাসপাতালের সামনে শর্মিলার সমর্থকরা তাঁকে মারধর করে তাড়িয়ে দেন। শর্মিলার পরিবারের বক্তব্য ছিল, আফস্পা-বিরোধী আন্দোলনকে দৃর্বল করতে ও শর্মিলার মনকে বিক্ষিপ্ত করতে এ সব সরকারি চক্রান্ত। এ খবর দিয়েছে আনন্দবাজার।

উল্লেখ্য, ভারতে সেভেন সিসটারসের বাসিন্দাদের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে শর্মিলা গত ১৬ বছর ধরে একটানা অনশন করে আসছিলেন। তিনি অধিকার আদায়ের সহিংস পন্থার বিরোধী।

শেয়ারবাজারনিউজ/মা

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.