আজ: সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ মার্চ ২০১৮, বুধবার |



kidarkar

২.৫ মাসে ইনডেক্সের পতন হয়েছে ১২ শতাংশ

উন্নয়নের জোয়ারে ভাসতে ভাসতে গত ২.৫ মাসে ইনডেক্সের পতন হয়েছে ৭৬২ পয়েন্ট। গত জানুয়ারি মাসে ইনডেক্স ছিল ৬৩৩২। আজ মার্চ মাসে ইনডেক্স দাঁড়িয়েছে ৫৫৭২ পয়েন্ট। দেশ মুখে মুখে উন্নয়নের জোয়ারে ভাসলেও দেশের পুজিবাজারের দিকে তাকালে মনে হয় দেশ কোন এক যুদ্ধের দাড় প্রান্তে। যদি তাই না হতো তাহলে অল্প কয়েক দিনের ব্যবধানে ১২% অর্থাৎ ৭৬২ পয়েন্টের পতন হতো না। মাত্র কয়েক দিনের ব্যবধানে ১২% অর্থাৎ ৭৬২ পয়েন্টের পতন কোন স্বাভাবিক ঘটনা নয়।

বাজার ৫৫৭২ পয়েন্টে অবস্থান করলেও ৪০% শেয়ারের দাম ৪৫০০ ইনডেক্সে যে অবস্থায় ছিল তার নিচে চলে গেছে। বিনিয়োগকারী গণ মনে হয় ২০১০ সালের পর আবার বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হল। বর্তমান সরকারের সময় নিত্য প্রয়োজনীয় প্রতিটি জিনিসের দাম বাড়তে বাড়তে চূড়ান্ত পর্যায়ে চলে গেলেও তারা একটি জায়গায় এসে ১০০% সফল। আর তা হচ্ছে দেশের পুজিবাজারকে কোন ভাবেই তারা বিকশিত হতে দেয়নি। শেয়ার গুলোর দাম এখনও মুদির দোকানের সেই চকলেটের দামে পড়ে আছে।

বর্তমান বাজার যে অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তা থেকে উত্তরনের জন্য সরকারকেই এগিয়ে আসতে হবে। সরকারের এই শেষ সময়ে এসে বাজারে এতোটা বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হবে তা দেশের বিনিয়োগকারীদের ধারনার বাইরে ছিল। বাজারের বেশির ভাগ বিনিয়োগকারী এখনও আশায় বুক বেধে আছে। তারা এখনও আশাবাদী বাজার আবার ঘুরে যাবে। তাই পুজিবাজারের সাথে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে বলবো বাজারকে একটি দীর্ঘ মেয়াদি মন্দায় ফেলে দিবেন না। কারন বাজার একটি দীর্ঘ মেয়াদি মন্দায় পড়ে গেলে তা থেকে বের করে আনতে অনেক অনেক সময় লাগবে।

তানভীর আহমেদ।

শেয়ার বিনিয়োগকারী

উত্তরা, ঢাকা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.