আজ: বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪ইং, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৭ এপ্রিল ২০১৮, শনিবার |

kidarkar

বাজার মুলধন বেড়েছে প্রায় সাড়ে ১৩ হাজার কোটি টাকা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: গত সপ্তাহে সূচকের উত্থান যেমন চোখের পড়ার মতো ছিলো তেমনি লেনদেন বৃদ্ধির পরিমাণও ছিলো সন্তোষজনক। মার্চেন্ট ব্যাংক, সিকিউরিটিজ হাউজ, বিনিয়োগকারীসহ বাজার সংশ্লিষ্টরা সপ্তাহজুড়ে ২৪৩ পয়েন্ট সূচক ও ১১১ শতাংশ লেনদেন বৃদ্ধি দেখে বাজার নিয়ে খুবই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তারা বলছেন, বাজার তার নিজ গতিতেই আবার ঘুরে দাঁড়াবে। তবে বাজারের এই আচারণ আগামী সপ্তাহের শুরুতে যদি ইতিবাচক দেখা যায় তাহলে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরে আসবে।

গত সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধনের পরিমাণও বেড়েছে। সপ্তাহ শেষে ডিএসইর বাজার মূলধনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৫ হাজার ১৫৬ কোটি ৭ লাখ ৯৭ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ  ছিল ৩ লাখ ৯১ হাজার ৭১৮ কোটি ৫৮ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। সে হিসেবে সপ্তাহশেষে ডিএসইর বাজার মূলধন বেড়েছে ১৩ হাজার ৪৩৭ কোটি ৪৯ লাখ ২৯ হাজার টাকা ।

 

এদিকে সাপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ইতিবাচক প্রবণতা বিরাজ করেছে। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া পাঁচ কার্যদিবসের ৪দিন সূচক বেড়েছে। বাকি ১ কার্যদিবস কমলেও এর মাত্র ছিলো সামান্য। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের প্রধান শেয়ারবাজারে সূচক বেড়েছে। এদিকে সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমান ১১১.৪৭ শতাংশ বেড়েছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৭১৪ কোটি টাকা। পাশাপাশি চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেড়েছে সূচক।

সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সপ্তাহশেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক বেড়েছে ৪.৩৫ শতাংশ বা ২৪৩ দশমিক ৭৫ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ৪.২০ শতাংশ বা ৮৮.৫১ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক বেড়েছে ৩.১৯ শতাংশ বা ৪১.৮৯ পয়েন্ট। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৪১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৯৪টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ৩৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টির। আর লেনদেন হয়নি ১টি কোম্পানির শেয়ার। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন মোট ২ হাজার ৭১৪ কোটি ৬২ লাখ ৭৭ হাজার ৭৮৫ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ১ হাজার ২৮৩ কোটি ৭০ লাখ ৬৩ হাজার ৮৫ টাকার। সেই হিসাবে সমাপ্ত সপ্তাহে লেনদেন বেড়েছে ১১১ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

আর সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৯১ দশমিক ৯৯ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৬ দশমিক ৪৮ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ০ দশমিক ৫৮ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ০ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

সপ্তাহশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই)সার্বিক সূচক সিএসইএক্স ৪৮৮ দশমিক ১৩ পয়েন্ট বা ৪.৬৯ শতাংশ বেড়ে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৮৯১ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাত বদল হওয়ার ২৮৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ২৪২টির, কমেছে ৩৮টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির দর। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ২০৩ কোটি ৫৪ লাখ ১৪ হাজার ৪২৯ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.