আজ: বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ইং, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৬ মে ২০১৫, বুধবার |

kidarkar

সালমানের ৫ বছরের জেল

salmanশেয়ারবাজার ডেস্ক: হিট অ্যান্ড রান মামলায় আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন সালমান খান। গাড়ি চাপা দিয়ে পথচারী হত্যার কারণে ৫ বছরের জেল হলো তার।

বুধবার দুপুর ১টা ৫৮ মিনিটে (বাংলাদেশ সময়) মুম্বাইয়ের স্থানীয় একটি আদালতে বিচারক ডি ডব্লিউ দেশপান্ডে এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে কান্নায় ভেঙে পড়েন ৪৯ বছর বয়সী এই অভিনেতা।

জানা গেছে, আদালত থেকে সালমানকে সরাসরি আর্থার রোডের জেলে নিয়ে যাওয়া হবে। এখন তাকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। সংগ্রহ করা হয়েছে তার মেডিকেল রেকর্ড।

এদিকে জামিনের জন্য বলিউডের এই সুপারস্টার উচ্চআদালতের দ্বারস্থ হচ্ছেন বলেও জানা গেছে ।

একটি বেকারির সামনে ২০০২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর রাতে কয়েকজন ফুটপাতবাসীকে পিষে দেয় সালমান খানের গাড়ি। এসময় একজনের মৃত্যু হয়। সেই অভিযোগের মামলায় ১৩ বছর পর দোষী সাব্যস্ত হলেন বলিউডের শক্তিমান এই অভিনেতা। সালমানের বিরুদ্ধে সব অভিযোগ সত্য বলে মন্তব্য বিচারপতির। মদ্যপ অবস্থায় নিজেই গাড়ি চালাচ্ছিলেন তিনি। দুর্ঘটনার সময় লাইসেন্স ছিল না সলমনের। অনিচ্ছাকৃত খুনের জন্য ৩০৪ ধারায় দোষী সব্যস্ত হলেন সালমান। মামলা চলাকালীন সালমানের ড্রাইভার অশোক সিং জানিয়েছিলেন সালমান নন, তিনি সেদিন রাতে গাড়ি চালাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু সাক্ষ্যপ্রমাণ দেখে সালমানকেই দোষী সব্যস্ত করেছে আদালত। এই মামলায় দোষী সব্যস্ত হওয়ায় অন্তত ১০ বছর বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে সালমানের। আদালতে অপস্থিত থাকা সালমানের এক অনুরাগী জানান, সকাল থেক হালকা মেজাজে থাকলেও রায় ঘোষণার পরই ভেঙে পড়েন সালমান।

মুম্বাইয়ের আদালতে বিচারপতি যখন দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করেন তখন রায় শুনে কেঁদে ফেলেন সালমান খান। এসময় তাকে বেশ অসহায় দেখাচ্ছিলো।

রায় পড়তে গিয়ে বিচারপতি বলেন, ‌‌এই মামলায় দশ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে সালমানের। এবিষয়ে বিচারপতি সালমানের মতামত জানতে চান। সালমান উত্তরে কিছু বলেননি। তিনি ইশারায় নিজের আইনজীবীকে দেখিয়ে দেন।

জানা গেছে, এখনও শাস্তি ঘোষণা হয়নি সালমানের। ধারনা করা হচ্ছে কমপক্ষে ১০ বছরের জেল হতে পারে এই নায়কের। এদিকে সালমানের উপর দোষ প্রমানীত হওয়ায় দুশ্চিন্তার কালো মেঘ ভর করেছে বলিউডের আকাশে। মাতাল অবস্থায় গাড়ি চাপা দিয়ে একজনকে খুন করার অপরাধের সালমানের ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। সত্যি এমন কিছু হলে প্রায় ২৫০ কোটি টাকা লোকসানের হুমকিতে পড়বে বলিউড। বলিউডের একাধিক প্রযোজক তাই প্রার্থনা করবেন সালমানের কমজোর সাজার জন্য। সালমান খানের উপর এই মুহূর্তে ২৫০ কোটি টাকারও বেশি লগ্নি রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম সুরজ বারজাতিয়ার ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ এবং কবীর খানের ‘বজরঙ্গী ভাইজান’। ইতিমধ্যেই ছবি দু’টির শুটিংও শুরু হয়ে গিয়েছিলো। এছাড়াও বিভিন্ন রিয়েলিটি শো ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের সাথে নানা চুক্তিতে আবদ্ধ ছিলেন সালমান। সবকিছু মিলিয়ে এই দাবাং হিরোর শাস্তিতে ভালোই লোকসানের মুখে পড়বে বলিউড।

 

 

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.