অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষা ৮ ডিসেম্বর

শেয়ারবাজার ডেস্ক: অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষার আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৮ ডিসেম্বর। বিটিআরসির ফেসবুক পেজ এক পোস্টের মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বিটিআরসির শীর্ষ পর্যায়ের একাধিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেও পরীক্ষা নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এর আগে বিটিআরসির তরঙ্গ বিভাগের প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসিম পারভেজ জানিয়েছিলেন, এবছরের মধ্যেই অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষা নেয়ার আগ্রহ রয়েছে তাদের। এরই ধারবাহিকতায় দেশের কয়েকজন হ্যাম সংগঠক এবং সাংবাদিকরা নাসিম পারভেজের সঙ্গে তার কার্যালয়ে গিয়ে দেখা করে অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষা আয়োজনের অনুরোধ জানান।

এসময় তারা নাসিম পারভেজের কাছে পরীক্ষা দিতে আগ্রহী তিন শতাধিক পরীক্ষার্থীর একটি খসড়া তালিকা দেন। বিপুল সংখ্যক পরীক্ষার্থীদের আগ্রহের প্রেক্ষিতে নাসিম পারভেজ অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষার তাগিদ অনুভব করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিটিআরসির এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন,‘২০১৮ সালের মধ্যে অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষা নেয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে ৮ ডিসেম্বর। আশা করি আমরা এরই মধ্যে সংবাদপত্রে পরীক্ষার্থী আহ্বানের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশসহ প্রয়োজনীয় সকল কাজ সম্পন্ন করতে পারবো।’

বাংলাদেশের হ্যাম সংগঠক অনুপ কুমার ভৌমিক বলেন, ২০১৭ সালে যখন অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষা নেয়া হয়েছিল তখন তরঙ্গ বিভাগের প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসিম জানিয়েছিলেন প্রতি বছর অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষার আয়োজন করবেন। তিনি তার কথা রেখেছেন এজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাই। পাশাপাশি বিটিআরসির কাছে আহ্বান জানাই ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট এবং রাজশাহীতে একই দিনে পরীক্ষা নেয়ার জন্য। এতে করে ওইসব এলাকার হ্যাম হতে আগ্রহীরা ঢাকায় না এসেও পরীক্ষা দিতে পারবেন।’

অনুপ কুমার ভৌমিক আরো বলেন, বাংলাদেশে হ্যাম চর্চা বাড়ানোর জন্য আমরা জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছি। আমাদের প্রত্যাশা এবার এক হাজারেরও বেশি পরীক্ষার্থী হ্যাম রেডিও লাইসেন্স পাওয়ার জন্য পরীক্ষায় বসবেন। পরীক্ষার্থীদের জন্য আমরা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিনামূল্যে সাতটি ওয়ার্কশপ করবো। এছাড়াও পরীক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে পরীক্ষা সহায়িকা বিতরণ করা হবে।’

সর্বশেষ ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষার আয়োজন করা হয়। পরীক্ষা শেষে পরীক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করে বিটিআরসি। সভায় বিটিআরসির তরঙ্গ বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসিম পারভেজ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রতিবছর বিটিআরসি এই পরীক্ষার আয়োজন করবেন।

তিনি প্রতি বছর পরীক্ষা নেয়ার কারণ হিসেবে বলেছিলেন, ‘প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় অ্যামেচার রেডিও অপারেটরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। তারা দুর্যোগকালে রেডিও যোগাযোগ স্থাপন করে উদ্ধার ও ত্রাণ কার্যে অংশ নেয়।’

১৯৯১ সালে সাবেক বাংলাদেশ তরঙ্গ ও বেতার বোর্ডের ১৮ তম সভায় এদেশে প্রথম অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস প্রবর্তণের জন্য লাইসেন্স প্রদান করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এরপর ১৯৯৫ সালে প্রথম অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে বিটিআরসি হতে ২০০৩, ২০০৮, ২০১৩ এবং সর্বশেষ ২০১৭ সালে অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষা নেয়।

২০১৩ সালের পরীক্ষায় ১৬৬ জন অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে ১৪৭ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হন। ২০১৭ সালে ২১০ জন পরীক্ষা দেন। যাদের মধ্যে ১৭৭ জন পাশ করেন।

অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরিক্ষার্থীগণকে বিটিআরসি হতে অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস সার্টিফিকেট দেয়া হয়। পরবর্তীতে উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের অনুকূলে কল সাইনসহ অ্যামেচার রেডিও লাইসেন্স দেয়া হয়। এরপর তারা রেডিও সেট কেনার জন্য বিটিআরসির কাছ থেকে অনাপত্তিপত্র সংগ্রহ করে রেডিও সংগ্রহ করেন। সাধারণত হ্যাম রেডিও সেট বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়।

অ্যামেচার রেডিও সাধারণত নির্দিষ্ট বেতার তরঙ্গে অবাণিজ্যিকভাবে তথ্য আদান প্রদান, গবেষণা, ব্যক্তিগত প্রশিক্ষণ এবং জরুরি অবস্থায় ব্যবহৃত একটি টেলিযোগাযোগ সার্ভিস।

‘অ্যামেচার’ শব্দটি সাধারণত আর্থিক সংশ্লিষ্টতাবিহীন সম্পূর্ণ ব্যক্তিগতভাবে প্রযুক্তি সংক্রান্ত বিষয়ে আগ্রহী ব্যবহারকারীকে বাণিজ্যিক ব্রডকাস্টিং, জননিরাপত্তা প্রদানকারী সংস্থা অথবা পেশাদার টু-ওয়ে সার্ভিস হতে পৃথক করার জন্য ব্যবহার করা হয়।

প্রাকৃতিক দূর্যোগ কিংবা জরুরি অবস্থায় অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসাবে ভূমিকা রাখে। অ্যামেচার রেডিও অপারেটরদের হ্যাম বলা হয়।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top