চলমান সহিংসতা বিমায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে

biaশেয়ারবাজার রিপোর্ট : হরতাল ও অবরোধের কারণে চলতি মাসের (জানুয়ারি) মধ্যভাগ পর্যন্ত বিমা কোম্পানিগুলোকে প্রায় ৪০০টি মোটর গাড়ির বিমা দাবি পরিশোধ করতে হবে এমন তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশেন (বিআইএ)।

পাশাপাশি বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলের ডাকা বৃহস্পতিবারের (১৫ জানুয়ারি) হরতালের তীব্র নিন্দাও জানিয়েছে সংগঠনটি।

বুধবার (১৪ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটির পক্ষ থেকে এ নিন্দা জানান বিআইএ’র সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রাইভেট ইউনির্ভাসিটি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ কবির হোসেন।

এতে বলা হয়, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি ও হরতাল এই দুই মিলে রাজনৈতিক দলগুলো দেশের ব্যবসা ও অর্থনীতির গতি চরমভাবে থামিয়ে দিচ্ছে।

সাবেক প্রতিমন্ত্রী রিয়াজ রহমানকে দুষ্কৃতিকারীরা হামলা করেছে যার ফল ভোগ করতে হচ্ছে সাধারণ জনগণকে। গত রাতে অবরোধকারীদের পেট্রোল বোমা হামলা ও গাড়ির গতিরোধ করার মাধ্যমে দুজন সাধারণ মানুষের প্রাণহানি হয়।

এছাড়া প্রতিনিয়ত হরতাল ও অবরোধের কারণে মারা যাচ্ছে বহুসংখ্যক নারী-শিশু ও সাধারণ জনতা। এসবের জন্য কোন প্রতিক্রিয়া রাজনৈতিক দলগুলোর দেখা যাচ্ছেনা। রাজনৈতিক দুলগুলোর কর্মসূচির মত সাধারণ জনগণ হরতাল ডাকতে পারছে না কারণ তারা দূর্বল।

বিজ্ঞপ্তিতে হরতাল ধ্বংসের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে এমন দাবি করে বলা হয়, হরতালকে ধ্বংসের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে যার ফলাফল- প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যানবাহন ভাঙচুর হচ্ছে, শিশু-নারী নির্বিচারে মৃত্যুর মুখে পতিত হচ্ছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে দেশের সকল ব্যবসা। দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ছে, শিক্ষা ব্যবস্থা বিঘ্নিত হচ্ছে। এ ক্ষতিকর ফলাফলের ভার পড়ছে ব্যবসায়ী মহল ও সাধারণ জনগণের ওপর।

চলতি জানুয়ারি মাসে মধ্যভাগ পর্যন্ত বিমা কোম্পানিগুলোকে প্রায় ৪০০টি মোটর গাড়ির বিমা দাবি পরিশোধ করতে হবে। এই ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া বিমা কোম্পানিগুলোর জন্য অত্যন্ত কষ্টকর। এভাবে চলতে থাকলে দেশের অর্থনীতির চাকা স্থবির হয়ে পড়বে।

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top