আজ: শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, সোমবার |



kidarkar

আজ রিং সাইনের কারখানা পরিদর্শন করবে বিএসইসি

শেয়ারবাজার রিপোর্টঃ রিং সাইন টেক্সটাইলের কারখানা পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) গঠিত তদন্ত কমিটি।

আজ সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) কোম্পানির কারখানা পরিদর্শনের জন্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। কারখানা পরিদর্শনকালে কোম্পানির উৎপাদন বন্ধের কারণসহ সার্বিক অর্থিক অবস্থা যাচাই করা হবে বলে বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি রিং সাইনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন অথরিটির (বেপজা) নির্বাহী চেয়ারম্যানকে কারখানা পরিদর্শনের বিষয়টি চিঠি দিয়ে অবহিত করেছে বিএসইসি।

রিং শাইনের কারখানা পরিদর্শন করবেন বিএসইসির পরিচালক ও গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান রিপন কুমার দেবনাথ, উপ-পরিচালক ও তদন্ত কমিটির সদস্য মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম মজুমদার এবং উপ-পরিচালক ও তদন্ত কমিটির সদস্য মো. ইকবাল হোসেন।

এর আগে গত ২৬ জানুয়ারি রিং সাইনের পুনরায় উৎপাদন শুরুর মাধ্যমে ব্যবসা উন্নয়নের লক্ষ্যে কোম্পানির পর্ষদ পুনর্গঠন করে বিএসইসি। এরই ধারাবাহিকতায় গত ৩ ফেব্রুয়ারি কোম্পানির পুনর্গঠিত পরিচালনা পর্ষদকে ডেকে আর্থিক অবস্থা উন্নয়ন ও সার্বিক বিষয়ে দিক-নির্দেশনা দিয়েছে বিএসইসি।

বিএসইসির চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, রিং সাইনের আর্থিক সক্ষমতা যাচাইয়ে লক্ষ্যে গঠিত তদন্ত কমিটি আগামীকাল সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) কারখানা পরিদর্শন করবে। কোম্পানির উৎপাদন বন্ধের কারণ, প্রকৃত উৎপাদনের অবস্থা, উৎপাদন সক্ষমতা, মজুত পণ্যের তথ্য ও পরিচালনা পর্ষদে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন বিষয় দেখভালের জন্য পরিদর্শন কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

এজন্য সাভারে অবস্থিত ঢাকা এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোনে (ডিইপিজেড) কারখানা পরিদর্শনের সময় রিং সাইনের প্রথম সারির ম্যানেজমেন্টকে উপস্থিত থাকার জন্য চিঠিতে অনুরোধ করা হয়েছে।

এছাড়া রিং সাইনের উৎপাদন শুরু ও আর্থিক অবস্থার উন্নয়নে সার্বিক বিষয় তদারকি করছে কমিশন। এজন্য সম্প্রতি কোম্পানির উন্নয়নে পরিচালনা পর্ষদে ৭ জন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

কমিশন মনে করে, স্বতন্ত্র পরিচালকদের নেতৃত্বে রিং সাইনের ব্যবসায় উন্নয়ন হবে। এর ফলে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষা করা সম্ভব হবে।

কোম্পানির স্বতন্ত্র পরিচালকরা হলেন- পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি মেজবাহ উদ্দিন (পিআরএল), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ল্যাদার ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ‌্যাকাউন্টিং অ্যান্ড সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্সের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সগির হোসাইন খন্দকার, জনতা ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. ফোরোজ আলী, পাওয়ার গ্রীডের স্বতন্ত্র পরিচালক ইসতাক আহমেদ শিমুল ও অ্যাভিয়েশন ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেসের সাবেক মহাব্যবস্থাপক আব্দুর রাজ্জাক।

রিং সাইন ২০১৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়।বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন করছে কোম্পানিটি।

২০১৯ সালে কোম্পানিটি ১৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ করেছিল।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.