আজ: সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৩ অগাস্ট ২০২১, মঙ্গলবার |



kidarkar

মেক্সিকোকে হারিয়ে ফাইনালে ব্রাজিল

স্পোর্টস ডেস্ক: ঘরের মাঠে রিও অলিম্পিকে নেইমার-জেসুসদের ছন্দে ফুটবলে প্রথম স্বর্ণ জিতেছিলো ব্রাজিল। টোকিও অলিম্পিকে ওই স্বর্ণ ধরে রাখার মিশনে মেক্সিকোকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে গেছে ব্রাজিল। সেমিফাইনালে টাইব্রেকারে ৪-১ গোলের জয় তুলে নিয়েছেন দানি আলভেজরা।

নির্ধারিত সময়ে রিচার্লিসন, গুইমারেসরা গোল করতে পারেননি। ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানেও গোল শূন্য সমতায় শেষ হয়। এরপর টাইব্রেকার রোমাঞ্চ। সেখানে শুরুর চার শটেই গোল করে ব্রাজিল। তিন শটের প্রথম দুটি মিস করায় বিদায় নেয় মেক্সিকো।

টাইব্রেকারে মেক্সিকো বিবর্ণ থাকলেও ব্রাজিলের সংগে ম্যাচে চোখে চোখ রেখে লড়াই করেছে। ব্রাজিলের গোল মুখে ১১ শটের বিপরীতে তাঁরাও কাউন্টার অ্যাটাক তুলে আটটি ভালো শট নিয়েছে। কিন্তু রক্ষণে ব্রাজিলের অভিজ্ঞ দানি আলভেস-দিয়াগো কার্লোস ও গোলবারের নিচে সান্তোস-এর সামনে সুবিধা করতে পারেনি।

ব্রাজিলের হয়ে প্রথম শটটি নেন অধিনায়ক দানি আলভেস। ৩৮ বছর বয়সী সেলেকাও ডিফেন্ডারের গোল করতে ভুল হয়নি। এরপর আর্সেনালের তরুণ ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লি জালে জড়িয়ে দেন বল। তৃতীয় শটটি নেন লিঁও’র সেলেকাও মিডফিল্ডার ব্রুনো গুইমারেস। ভুল হয়নি তাঁরও। রিয়াল মাদ্রিদের রেইনিয়ের জেসুস চতুর্থ গোলটি করেই দলকে উল্লাসে ভাসান। অন্য সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে জাপান-স্পেন। ওই ম্যাচেই নির্ধারণ হবে স্বর্ণ জয়ের লড়াইয়ে ফাইনালে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ।

নির্ধারিত সময়ে রিচার্লিসন, গুইমারেসরা গোল করতে পারেননি। ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানেও গোল শূন্য সমতায় শেষ হয়। এরপর টাইব্রেকার রোমাঞ্চ। সেখানে শুরুর চার শটেই গোল করে ব্রাজিল। তিন শটের প্রথম দুটি মিস করায় বিদায় নেয় মেক্সিকো।

মেক্সিকো’র বিপক্ষে দলকে নেতৃত্ব দেওয়া দানি আলভেস। ছবি: ‍টুইটার

টাইব্রেকারে মেক্সিকো বিবর্ণ থাকলেও ব্রাজিলের সংগে ম্যাচে চোখে চোখ রেখে লড়াই করেছে। ব্রাজিলের গোল মুখে ১১ শটের বিপরীতে তাঁরাও কাউন্টার অ্যাটাক তুলে আটটি ভালো শট নিয়েছে। কিন্তু রক্ষণে ব্রাজিলের অভিজ্ঞ দানি আলভেস-দিয়াগো কার্লোস ও গোলবারের নিচে সান্তোস-এর সামনে সুবিধা করতে পারেনি।

ব্রাজিলের হয়ে প্রথম শটটি নেন অধিনায়ক দানি আলভেস। ৩৮ বছর বয়সী সেলেকাও ডিফেন্ডারের গোল করতে ভুল হয়নি। এরপর আর্সেনালের তরুণ ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লি জালে জড়িয়ে দেন বল। তৃতীয় শটটি নেন লিঁও’র সেলেকাও মিডফিল্ডার ব্রুনো গুইমারেস। ভুল হয়নি তাঁরও। রিয়াল মাদ্রিদের রেইনিয়ের জেসুস চতুর্থ গোলটি করেই দলকে উল্লাসে ভাসান। অন্য সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে জাপান-স্পেন। ওই ম্যাচেই নির্ধারণ হবে স্বর্ণ জয়ের লড়াইয়ে ফাইনালে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.