আজ: রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ইং, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৯ নভেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার |



kidarkar

শেয়ার কারসাজির ইঙ্গিত বাংলাদেশ ব্যাংকের!

আইন ভেঙে শেয়ারবাজার বিনিয়োগে সাউথইস্ট ব্যাংককে জরিমানা

শেয়ারবাজার এক্সক্লুসিভ: ব্যাংকিং কোম্পানি আইন লঙ্ঘন করে একটি কোম্পানির শেয়ারে অতিরিক্ত বিনিয়োগের দায়ে সাউথইস্ট ব্যাংককে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকটি ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগ করেছে, তার মূলধনের অনুমোদিত ২৫% অতিক্রম করেছে।

তথ্য মতে, ব্যাংকটি ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের প্রায় ২৪ লাখ শেয়ার কিনেছে। গত এক বছরে কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের দাম ছিল ২১০ টাকা থেকে ২৮০ টাকা।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ ব্যাংক সাউথইস্ট ব্যাংককে অনুমোদিত সীমার মধ্যে বিনিয়োগ নামিয়ে আনতে বললেও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা মানেনি ব্যাংকটি। পরিবর্তে, ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কৌশলে তাদের কাছে থাকা শেয়ারটি অন্য অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে, বাংলাদেশ ব্যাংক আর্থিক জরিমানা করেছে, এ বিষয়ে গত মাসে সাউথইস্ট ব্যাংককে কেন্দ্রীয় ব্যাংক একটি চিঠি পাঠিয়েছে। একই সঙ্গে অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয় না করা পর্যন্ত প্রতিদিন ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে ব্যাংককে।

সাউথইস্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম কামাল হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, শেয়ারের দাম বৃদ্ধির কারণে বিনিয়োগ অনুমোদিত সর্বোচ্চ সীমা ছাড়িয়ে গেছে। বিনিয়োগ সীমার মধ্যে নামিয়ে আনা হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক শেয়ারবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ তদন্ত পরিচালনা করে এবং নিয়ম লঙ্ঘনে বেশ কয়েকটি ব্যাংকের জড়িত থাকার বিষয়টি সনাক্ত করার পরে ব্যাংকটিকে জরিমানা করা হয়।

এর আগে, কেন্দ্রীয় ব্যাংক শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ সংক্রান্ত নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য চারটি ব্যাংক – এনআরবি ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক এবং প্রিমিয়ার ব্যাংককে জরিমানা করেছিল।

আরও চারটি ব্যাঙ্ককে সতর্ক করা হয়েছিল যে ভবিষ্যতে আরও কোনও লঙ্ঘন পাওয়া গেলে শেয়ারবাজার বিশেষ ফান্ডে তাদের অনুমোদন স্থগিত করা হবে। ব্যাংকগুলো হলো ইস্টার্ন ব্যাংক, ইউনিয়ন ব্যাংক, গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক ও অগ্রণী ব্যাংক।

উল্লেখ্য, বীমা খাতে শেয়ার কারসাজির বিষয়টি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ব্যাপকভাবে আলোচিত ছিল। ডিএসই অনুসারে, গত এক বছরে ৫৩টি তালিকাভুক্ত বীমা কোম্পানির মধ্যে 48টির শেয়ারের দাম ১০০% থেকে ৭৫০% পর্যন্ত বেড়েছে।

কোনো মৌলিক কারণ বা আর্থিক অবস্থা বা লভ্যাংশ ঘোষণার উন্নতি ছাড়াই জাঙ্ক এবং স্বল্প মূলধনী শেয়ারের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুসন্ধানে ইঙ্গিত করা হয়েছে যে গত এক বছরে জাঙ্ক শেয়ারের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধির পিছনে ছিল ব্যাংকগুলো।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.