দেশের কম্পিউটার ব্যবসায় ধ্বস

Computer Businessশেয়ারবাজার ডেস্ক: দেশে তথ্যপ্রযুক্তির প্রসার ঘটলেও ক্রমেই কম্পিউটার ব্যবসা থেকে সরে আসছেন এ খাতের সংশ্লিষ্টরা। গত তিন বছরে দেশের ৩২টি পরিবেশক প্রতিষ্ঠান, মাল্টিপ্ল্যান সেন্টারের প্রায় ১০০টি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়েছে। বেশকিছু প্রতিষ্ঠান কোনো রকমে টিকে আছে। কয়েকটি অচিরেই বন্ধের পর্যায়ে রয়েছে। আবার অনেকে তাদের ব্যবসার পরিসর ছোট করে এনেছেন। রাজধানীর আল্পনা প্লাজা, সুবাস্তু টাওয়ার ও আইডিবি ভবনের ব্যবসায়ীদের মধ্যেও একই অবস্থা। এদিকে বড় কম্পিউটার ব্যবসায়ীদের প্রায় ৯০ শতাংশ ব্র্যান্ডের কম্পিউটার বিক্রি কমেছে।

ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে অঙ্গীকারবদ্ধ হলেও কম্পিউটার সামগ্রীর ব্যবসায়ীদের জন্য বাজেটে কোনো বরাদ্দ নেই। এছাড়া শুধু কম্পিউটারের কাস্টম ডিউটি ৮ শতাংশের মধ্যে থাকলেও এ-সংক্রান্ত অন্যান্য প্রডাক্টে এ হার ৩৭ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত, যা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে অন্যতম প্রধান বাধা। এদিকে কম্পিউটার সামগ্রীর দামের ক্ষেত্রেও নির্ধারিত কোনো সীমারেখা নেই। একই পণ্য বিভিন্ন খুচরা ব্যবসায়ী বিক্রি করছেন ভিন্ন ভিন্ন দামে। এক্ষেত্রে কোনো উদ্যোগ নেই দেশের কম্পিউটার ও কম্পিউটারের যন্ত্রাংশ আমদানিকারক, পরিবেশক, বাজারজাতকারী, খুচরা বিক্রেতাদের সংগঠন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির।

জানা গেছে, নির্ধারিত মূল্যহার না থাকায় কম দামে বেশি বিক্রির অসুস্থ প্রতিযোগিতায় জড়িয়ে পড়েছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। একই সঙ্গে বিভিন্ন পরিবেশক প্রতিষ্ঠানের অপেশাদার আচরণে এ খাত থেকে আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন ব্যবসায়ীরা। দেশের বেশকিছু পরিবেশক প্রতিষ্ঠান খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে যে দামে প্রডাক্ট বিক্রি করছেন, একই দামে সরাসরি বিক্রি করছেন ব্যবহারকারীদের কাছেও, যা এ ব্যবসার সম্প্রসারণে একটি বাধা বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মন্তব্য

Top