টানা পতনে বাজার

indexশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের নেতিবাচক প্রবণতায় শেষ হয় লেনদেন। তবে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। এদিন শুরুতে উর্ধ্বমুখী থাকলেও ২০ মিনিট পর পড়তে থাকে সূচক এবং ৫০ মিনিট পড় ঘুড়ে দাড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় বাজার। আজ ডিএসই-তে সূচক ০.৫৪ শতাংশ কমেছে। এর ফলে টানা চর্তুথ দিনের মতো পতনে বিরাজ করছে শেয়ারবাজার। আজকের বাজারে ব্যাংক, বীমা, আর্থিক, ওষুধ এবং প্রকৌশলসহ বড় বড় খাতের অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে ।

সোমবার দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪৫১১ পয়েন্টে। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১০৯৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭২২ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১৮টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৯৭টির, কমেছে ১৭৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর। আজ ডিএসইতে মোট ৪৬২ কোটি ৭৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

এর আগের কার্যদিবসে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ৩০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪৫৩৬ পয়েন্টে। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১১০৮ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৭৩৬ পয়েন্টে । ওই দিন ডিএসইতে মোট ৪২৪ কোটি ৩৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকা অর্থাৎ ৯.০৯ শতাংশ বেড়েছে।

এদিকে দিনশেষে সিএসই সাধারণ মূল্যসূচক ৪৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮৪৫৮ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৪০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৬১টির, কমেছে ১৫২টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির। আজ সিএসই-তে মোট লেনদেন হয়েছে ৫১ কোটি টাকা।

এর আগের দিন সিএসই সাধারণ মূল্যসূচক ছিল ৮৫০১ পয়েন্ট। এদিন সিএসই-তে মোট লেনদেন হয়েছিল ২৮ কোটি ৮০ লাখ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/অ

আপনার মন্তব্য

Top