বীমা মেলা: পলিসি বিক্রিতে আগ্রহ নেই কোম্পানিগুলোর

Insurance-fair-1শেয়ারবাজার রিপোর্ট:  প্রথমবারের মত আয়োজিত বীমামেলায় কোম্পানিগুলোর পলিসি বিক্রিতে আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। লাইফ বা নন-লাইফ কোনো ধরনের বীমা কোম্পানিই পলিসি বিক্রিতে আগ্রহ দেখাচ্ছে না। এর মধ্যে নন-লাইফ বীমা কোম্পানিগুলোর অধিকাংশের বীমা স্টলে পলিসি বিক্রির ব্যবস্থাও করা হয়নি।

এ বিষয়ে পপুলার লাইফের চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ বলেন, ‘আমাদের কোম্পানি সর্বোচ্চ পরিমান বীমা দাবির চেক হস্তান্তর করেছে। মাঠকর্মীদের মাধ্যেমেই আমাদের ভালো পরিমানের পলিসি বিক্রি হচ্ছে, ফলে নতুন পলিসির দিকে না ঝুঁকে আমাদের আগ্রহ বীমাশিল্প ও পপুলার লাইফকে সাধারন মানুষের কাছে পরিচিত করা।’

মেলায় অংশ নেওয়া গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের স্টলের দায়িত্বে থাকা প্রতিনিধি জানান, ‘এখানে আমরা নতুন পলিসি বিক্রি করার মত ডেকোরেশনই তৈরী করিনি। নতুন পলিসি হলে তা অফিসে গিয়েই করতে হবে।’

গতকাল ২৩ মার্চ শুরু হওয়ার প্রথম দিনে জীবন-বীমা কোম্পানিগুলো বীমা দাবির চেক হস্তান্তর করার পর আজ মেলার দ্বিতীয় দিনে নন-লাইফ বীমা প্রতিষ্ঠানগুলো বীমা দাবির চেক হস্তান্তর করছে। প্রথমবারের মত শুরু হওয়া বীমা মেলায় গতকাল সর্বোচ্চ পরিমান বীমা দাবির চেক পরিশোধ করে পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি।

গতকাল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যেমে বীমা দাবীর চেক হস্তান্তর প্রক্রিয়ার উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এসময় জীবন বীমা খাতের ১৭টি কোম্পানি ও নন-লাইফ বীমা খাতের ১৬টি বীমা দাবির চেক হস্তান্তর করার পরিকল্পনা থাকলেও দুটি খাতের মোট ৪ টি করে দাবির চেক হস্তান্তর করেন মন্ত্রী। বাকি চেকগুলো পরবর্তিতে কোম্পানিগুলো হস্তান্তর করে। জীবন বীমা কোম্পানিগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ বীমা দাবির চেক হস্তান্তর করা পপুলার লাইফ এ সময় ৫৮টি দাবির চেক গ্রাহকের কাছে হস্তান্তর করে।

দেশের অন্যান্য খাতের ব্যবসায়িদের দেখানো পথ ধরে বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোর নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্স্যুরেন্স উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) বীমা মেলার উদ্যোগ নেয়। প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত এ মেলাতে গ্রাহক ও সর্বসাধারনের অংশগ্রহন হচ্ছে সল্প পরিসরে। লাইফ ও নন-লাইফ খাত মিলিয়ে মোট ৫১টি প্রতিষ্ঠান এ মেলায় অংশগ্রহন করলেও দর্শক সল্পতা ছিল চোখে পড়ার মত। মেলায় অংশ নেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মাঠকর্মীদের সাথে আসা কিছু ডেলিগেটের উপস্থিতি দেখা গেলেও অধিকাংশ দর্শনার্থী ছিলেন কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিরা।

মেলায় দেখা যায়, কোম্পানিগুলোর নতুন পলিসি বিক্রির আগ্রহ কম। কোম্পানিকে সাধারন মানুষের কাছে পরিচিত করার জন্যই মেলায় অংশ নিয়েছে কোম্পানিগুলো। এর মধ্যে জীবন বীমা কোম্পানিগুলোর পলিসি বিক্রির ব্যবস্থা থাকলেও অধিকাংশ নন-লাইফ বীমা কোম্পানিগুলোর স্টলে পলিসি বিক্রির কোনো ব্যবস্থাও নেই। নতুন গ্রাহক তৈরীর সম্ভবনা থাকলে তাঁদের প্রতিষ্ঠানের অফিসে গিয়েই পলিসি কিনতে হবে।

গতকাল ২৩ মার্চ থেকে শুরু হওয়া বীমা মেলার পর্দা নামবে আগামীকাল ২৫ মার্চ (শুক্রবার)।

শেয়ারবাজারনিউজ/ওহ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top