২৬ প্রকল্পে ৫ কোটি ‍টাকা অনুদান

bangladeshbankশেয়ারবাজার রিপোর্ট : সামাজিক দায়বদ্ধতার (সিএসআর) অংশ হিসেবে ২৬টি প্রকল্পে ৫ কোটি ১৩ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ‘বাংলাদেশ ব্যাংক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল’ থেকে এ ‍অনুদান দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ অনুদান দেওয়া হয়।

এ সময় প্রকল্পগুলোর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আর্থিক সহায়তার বিষয়ে সমঝোতা স্মারক সই করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

অনুষ্ঠানে গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, অর্থনীতি স্থিতিশীল রাখা, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখা, প্রবৃদ্ধি ও টাকার মান ধরে রাখা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান কাজ। এ কাজগুলো করে আমরা সিএসআর কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি।

এ (সিএসআর) লক্ষে আমরা গত বছর ‘বাংলাদেশ ব্যাংক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল’ চালু করেছি। তহবিলে প্রতি বছর বাংলাদেশ ব্যাংকের মুনাফা থেকে ৫ কোটি টাকা জমা করা হয়। যা সিএসআর কার্যক্রমে ব্যয় হয়।

ইতোমধ্যে তহবিল থেকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবেশ উন্নয়ন, বন্য প্রাণী সংরক্ষণ, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর নির্মাণ, বিভিন্ন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান বিশেষ করে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিট, ফায়ার সার্ভিসের সক্ষমতা ও দক্ষতা উন্নয়নসহ ১৪টি প্রকল্পে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

এ সময় আতিউর রহমান বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নরদের উদ্দেশে বলেন, আগামী বছর থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিজস্ব বাজেট থেকে তহবিলে ৫ কোটি টাকার পরিবর্তে ১০ কোটি টাকা করে রাখার ব্যবস্থা করুন।

সরকার বাজেটে সিএসআর’র সুযোগ সৃষ্টি করবে বলে আশা প্রকাশ করেন গভর্নর।

অনুদান প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর বিষয়ে আতিউর বলেন, আর্থিক অন্তর্ভুক্তি, আর্থসামাজিক উন্নয়ন, পরিবেশ সংরক্ষণ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন, জনকল্যাণ ও মানব সম্পদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রতিষ্ঠানগুলো কাজ করবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গ্রিন ব্যাংকিং অ্যান্ড সিএসআর বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মনোজ কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, ডেপুটি গভর্নর মো. আবুল কাশেম, আবু হেনা মো. রাজি হাসান, এস কে সুর চৌধুরী, নাজনীন সুলতানা, নির্বাহী পরিচালক ম. মাহফুজুর রহমানসহ অনুদান প্রাপ্ত ২৬টি প্রকল্পের প্রতিনিধিরা।

ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী বলেন, সিএসআর খাতে ২০০৯ সালে ব্যাংকগুলোর ব্যয় করা অর্থের পরিমাণ ছিল ৫৫ কোটি টাকা। বর্তমানে তা বেড়ে হয়েছে সাড়ে ৫’শ কোটি টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/তু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top