তিমির বমির মূল্য ৫০ হাজার ডলার!

whaleশেয়ারবাজার ডেস্ক : সম্প্রতি সমুদ্রতীরে হাঁটতে বেড়িয়েছিলেন এক বৃটিশ যুগল। হাঁটতে হাঁটতে তারা ধূসর রংয়ের একটি ছোট স্তূপ খুঁজে পায়। অনেকটা পঁচা মাছের মতই দেখতে ছিল ওটা। তারা কি ভেবে যেন সেই বস্তুটা কাগজে মুড়ে বাড়ি নিয়ে আসেন। কিন্তু পরে তারা জানতে পারনে ওই বস্তুটি আসলে তিমির বমি। ওই কুড়ান জিনিসের জন্য এখনই ক্রেতারা ৫০ হাজার মার্কিন ডলার দাম হেঁকছেন। এটি বিক্রি করেই ওই দম্পতি বড়লোক হয়ে যাবেন।

গার্ডিয়ান পত্রিকাটি জানিয়েছে, গ্যারি ও এঞ্জেলা উইলিয়ামস নামের ওই দম্পতি লাঙ্কাশায়ারের বাসিন্দা। মূল্যবান ওই বস্তুতি কেনার জন্য ফ্রান্স ও নিউজিল্যান্ডের বায়াররা তাদের কোছে ধর্ণা দিচ্ছেন। তিমির বমিভালো বাংলায় অম্বর নামে পরিচিত। এই উপাদানটি সুগন্ধী তৈরিতে ব্যবহৃত হয় বলে এর এত কদর।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েট ‘মিরর’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে ওই দম্পতি বলেন, তিমির বমির গন্ধ খুব বিশ্রী। প্রথমদিকে এর গন্ধ কটূ হলেও আস্তে আস্তে তা বদলাতে থাকে। যত পুরনো হয় ততই এর ঘ্রাণ মিষ্টি আর আকর্ষণীয় হয়।

সাধারণত আটলান্টি সমুদ্র ও দক্ষিণ আফ্রিকা, ব্রাজিল, মাদাগাস্কার, ইস্ট ইন্ডিজ, মালদ্বীপ, চীন, জাপান, ভারত অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও মালুক্কা দ্বীপের উপকূলে এই মূল্যবান বস্তুর দেখা মিলে। অন্যান্য স্থানে এর দেখা মেলে কদাচিৎ।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top