এবার প্রাইম ইসলামীর ব্যবস্থাপনা পরিচালককে ৩০ লাখ জরিমানা

abul kalamশেয়ারবাজার রিপোর্ট: শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানির শেয়ার নিয়ে কারসাজির সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে প্রাইম ইসলামি সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম ইয়াজদানীকে জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫৭৫তম সভায় তাঁকে ৩০ (ত্রিশ) লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়, প্রাইম ইসলামি সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিজস্ব বেনিফিসিয়ারি ওনার (বিও) অ্যাকাউন্টে মিথ্যা ও অসত্য তথ্য প্রদানের মাধ্যেমে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডন্যান্স ১৯৬৯ এর ১৮নং ধারা, সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বিধিমালা, ২০০০ এর ১৭(ই)(পাঁচ) বিধি ১১ এবং দ্বিতীয় তফসিলে বর্নিত অচরনবিধি ৫ ও ৭ ভঙ্গ করেছে।

উল্লেখিত বিধিমালা ভঙ্গ করার মাধ্যেমে ইয়াজদানী বাজারে শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানির শেয়ারের কৃত্তিম ঘাটতি তৈরী করে শেয়ারদর বাড়িয়েছেন। এসব অভিযোগের ভিত্তিতেই তাঁকে বড় অঙ্কের এ জরিমানা করা হয়। এ ব্যাপারে আবুল কালাম ইয়াজদানীরা সাথে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

প্রসঙ্গত, এর আগে জানা যায়, মিথ্যা ও অসত্য তথ্য প্রদান, মার্জিন রুলসের বিভিন্ন আইন ভঙ্গ, ডিলার হিসেবে শেয়ার ক্রয়, ডিলার হিসেবে শেয়ার ক্রয়ের ক্ষেত্রে গ্রাহক হিসাবের টাকা ব্যবহার এবং বাজারে শাহজিবাজার শেয়ারের কৃত্রিম সংকট তৈরীর জন্য শেয়ার ক্রয় করে সিকিউরিটিজ আইনের বিভিন্ন ধারা ভঙ্গ করার জন্য প্রাইম ইসলামি সিকিউরিটিজকে ২ কোটি ৫০ লাখ টাকা, পিএফআই সিকিউরিটিজকে এক কোটি ৫০ লাখ টাকা, প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটালকে ২০ লাখ টাকা, শার্প সিকিউরিটিজকে ২ লাখ টাকা, এআইবিএল সিকিউরিটিজকে এক লাখ টাকা এবং বিএলআই সিকিউরিটিজকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ১৫ দিনের মধ্যে জরিমানার টাকা পরিশোধ করার জন্য গত ১৩ জুলাই প্রতিষ্ঠানগুলোকে চিঠি দেয় বিএসইসি। এর পাশাপাশি যেসকল আইনের পরিপালনে প্রতিষ্ঠানটি ব্যর্থ হয়েছে তা তিন মাসের মধ্যে পরিপালনের জন্য নির্দেশ প্রদান করে পুঁজিবাজারের অভিভাবক প্রতিষ্ঠান বিএসইসি।

শেয়ারবাজারনিউজ/ওহ

আপনার মন্তব্য

Top