এক্সপোজার ইস্যুতে ৫ ব্যাংককে অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি

BSECশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজার এক্সপোজার ইস্যুতে ৫ ব্যাংককে অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ব্যাংকগুলো হলো: মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, সাউথইষ্ট ব্যাংক, শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক, এবি ব্যাংক এবং ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড। বুধবার অনুষ্ঠিত বিএসইসির ৫৮০তম কমিশন সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়।

পরবর্তীতে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো: সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্যাংক কোম্পানি আইন,১৯৯১ এর ধারা ২৬ক অনুসারে আগামী ২১ জুলাই ২০১৬ তারিখে সমাপ্য তিন বছরের সময়সীমার মধ্যে ব্যাংকের পুঁজিবাজার এক্সপোজারের আইনানুগ সীমা (ইক্যুটির ২৫ শতাংশ) এর মধ্যে আনতে ৫ ব্যাংকের সাবসিডিয়ারির বর্ধিত মূলধন উত্তোলনের (শেয়ারের জন্য আমানত অথবা ঋণকে ইক্যুইটিতে রূপান্তরের মাধ্যমে) অনুমোদন দেয়া হয়।

এক্ষেত্রে এমটিভি সিকিউরিটিজ লিমিটেড (মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি) স্টক ব্রোকার আবেদনের প্রেক্ষিতে ১২ কোটি ৫০ লাখ প্রতিটি ১০ টাকা মূল্যের সাধারণ শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যা কোম্পানির বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে ইস্যু করা হবে। উক্ত ইস্যুর মাধ্যমে কোম্পানিটি ১২৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। ফলশ্রুতিতে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ২০০ কোটি টাকা থেকে ৩২৫ কোটি টাকায় উন্নীত হবে।

সাউথইষ্ট ব্যাংক ক্যাপিটাল সার্ভিসেস লিমিটেড (সাউথইষ্ট ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি) মার্চেন্ট ব্যাংকের আবেদনের প্রেক্ষিতে ৩০ কোটি প্রতিটি ১০ টাকা মূল্যের সাধারণ শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যা কোম্পানির বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে ইস্যু করা হবে। উক্ত ইস্যুর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। ফলশ্রুতিতে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ২৫০ কোটি টাকা থেকে ৫৫০ কোটি টাকায় উন্নীত হবে।

শাহাজালাল ইসলামি ব্যাংক সিকিউরিটিজ লিমিটেড (শাহজালাল ইসলামি ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি) স্টক ব্রোকারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ৬ কোটি প্রতিটি ১০ টাকা মূল্যের সাধারণ শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যা কোম্পানির বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে ইস্যু করা হবে। উক্ত ইস্যুর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৬০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। ফলশ্রুতিতে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ২১৪ কোটি টাকা থেকে ২৭৪ কোটি টাকায় উন্নীত হবে।

এবি ইনভেষ্টমেন্ট লিমিটেড (এবি ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি) মার্চেন্ট ব্যাংকের আবেদনের প্রেক্ষিতে ৩০ কোটি ১১ লাখ ৪৩ হাজার ১৭৫ প্রতিটি ১০ টাকা মূল্যের সাধারণ শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যা কোম্পানির বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে ইস্যু করা হবে। উক্ত ইস্যুর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০১ কোটি ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৭৫০ টাকা উত্তোলন করবে। ফলশ্রুতিতে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ২৯৮ কোটি ৮৫ লাখ ৬৮ হাজার ২৫০ টাকা থেকে ৬০০ কোটি টাকায় উন্নীত হবে।

এনবিএল সিকিউরিটিজ লিমিটেড ( ন্যাশনাল ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি) স্টক ব্রোকারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ৩০ কোটি প্রতিটি ১০ টাকা মূল্যের সাধারণ শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যা কোম্পানির বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে ইস্যু করা হবে। উক্ত ইস্যুর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। ফলশ্রুতিতে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ১০০ কোটি টাকা থেকে ৪০০ কোটি টাকায় উন্নীত হবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top