গভর্নর ট্রেজারি বন্ডের বিক্রয় নিলাম ২৬ জুলাই

ramitance_bbশেয়ারবাজার রিপোর্ট: ১৫ বছর ও ২০ বছর মেয়াদী বাংলাদেশ গভর্নমেন্ট ট্রেজারি বন্ড বিক্রয় (রি-ইস্যু) এর নিলাম আগামী ২৬ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, ১৫-বছর মেয়াদী বাংলাদেশ গভর্নমেন্ট ট্রেজারি বন্ড বিক্রয় (রি-ইস্যু) এর নিলাম আগামী ২৬ জুলাই, ২০১৬ মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকে অনুষ্ঠিত হবে। এ নিলামে ২৭ এপ্রিল, ২০১৬ তারিখে ইস্যুকৃত ১৫-বছর মেয়াদী ট্রেজারি বন্ড (যার কুপন হার ৭.৭৯%, আইএসআইএন নং বিডি০৯৩১৪০১১৫৪ এবং মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ ২৭ এপ্রিল, ২০৩১) এর ৫০০ কোটি টাকা অভিহিত মূল্যের বন্ড রি-ইস্যু করা হবে। ট্রেজারি বন্ডের রি-ইস্যু নিলাম চৎরপব ভিত্তিক হবে। নিলামে রি-ইস্যুকৃত ট্রেজারি বন্ড ডিসকাউন্টে, প্রিমিয়ামে বা অভিহিত মূল্যে বিক্রয় হতে পারে। বিজয়ী বিডাররা স্ব স্ব বিডমূল্য (অ্যাকিউর্ড ইন্টারেস্ট) এবং মূল বন্ডটির ইস্যুর তারিখ হতে নিলামের তারিখ পর্যন্তসময়ে অর্জিত সুদ পরিশোধ করবে। এ পরিশোধিত সুদ রি-ইস্যুকৃত বন্ডের প্রথম কুপন (২৭/১০/২০১৬ তারিখে প্রাপ্য) এর সাথে ফেরৎ দেওয়া হবে। রি-ইস্যুকৃত বন্ডের জন্য বার্ষিক ৭.৭৯% হারে কুপন/মুনাফা ষান্মাসিক ভিত্তিতে পরিশোধ্য হবে। নিলামে কেবলমাত্র সরকারি সিকিউরিটিজের প্রাইমারি ডিলারের ভূমিকায় নিয়োগপ্রাপ্ত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ বিড দাখিল করতে পারবে। তবে অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানও (নিজস্ব খাতে বা তাঁদের ব্যক্তি/প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী গ্রাহকদের জন্য) প্রাইমারি ডিলারের মাধ্যমে অকশনে বিড দাখিল করতে পারবেন। অভিহিত মূল্যে প্রতি ১০০.০০ টাকা মূল্যের বন্ড ক্রয়ের জন্য কাঙ্খিত প্রাইস ও বন্ড ক্রয়ের পরিমাণ উল্লেখ করে নিলামের তারিখ সকাল ১০.০০ টা হতে দুপুর ১২.৩০ টার মধ্যে ইলেক্ট্রনিক প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকে স্থাপিত এমআই মডিউল এর মাধ্যমে বিড দাখিল করতে হবে। তবে বিশেষ কোন পরিস্থিতিতে প্রয়োজন হলে সংশ্লিষ্ট বিভাগের পূর্বানুমতি সাপেক্ষে পূর্বে অনুসৃত ম্যানুয়াল (বিডস ইন সিলড কভার্স) পদ্ধতিতে বিড দাখিল করা যেতে পারে। নিলামে অংশগ্রহণের বিশদ পদ্ধতিগত নির্দেশনা ইতোমধ্যে প্রাইমারি ডিলারসহ বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে পত্রযোগে জানানো হয়েছে।

এদিকে, ২০-বছর মেয়াদী ট্রেজারি বন্ড (যার কুপন হার ৮.২৪%, ওঝওঘ ঘড়. ইউ০৯৩৬৪০১২০৯ এবং মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ ২৭ এপ্রিল, ২০৩৬) এর ৫০০.০০ কোটি টাকা অভিহিত মূল্যের বন্ড রি-ইস্যু করা হবে। ট্রেজারি বন্ডের রি-ইস্যু নিলাম চৎরপব ভিত্তিক হবে। নিলামে রি-ইস্যুকৃত ট্রেজারি বন্ড ডিসকাউন্টে, প্রিমিয়ামে বা অভিহিত মূল্যে বিক্রয় হতে পারে। বিজয়ী বিডাররা স্ব স্ব বিডমূল্য এবং মূল বন্ডটির ইস্যুর তারিখ হতে নিলামের তারিখ পর্যন্তসময়ে অর্জিত সুদ পরিশোধ করবে। এ পরিশোধিত সুদ রি-ইস্যুকৃত বন্ডের প্রথম কুপন (২৭/১০/২০১৬ তারিখে প্রাপ্য) এর সাথে ফেরৎ দেওয়া হবে। রি-ইস্যুকৃত বন্ডের জন্য বার্ষিক ৮.২৪% হারে কুপন/মুনাফা ষান্মাসিক ভিত্তিতে পরিশোধ্য হবে। নিলামে কেবলমাত্র সরকারি সিকিউরিটিজের প্রাইমারি ডিলারের ভূমিকায় নিয়োগপ্রাপ্ত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ বিড দাখিল করতে পারবে। তবে অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানও (নিজস্ব খাতে বা তাঁদের ব্যক্তি/প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী গ্রাহকদের জন্য) প্রাইমারি

ডিলারের মাধ্যমে অকশনে বিড দাখিল করতে পারবেন। অভিহিত মূল্যে প্রতি ১০০.০০ টাকা মূল্যের বন্ড ক্রয়ের জন্য কাঙ্খিত প্রাইস ও বন্ড ক্রয়ের পরিমাণ উল্লেখ করে নিলামের তারিখ সকাল ১০.০০ টা হতে দুপুর ১২.৩০ টার মধ্যে ইলেক্ট্রনিক প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকে স্থাপিত এমআই মডিউল এর মাধ্যমে বিড দাখিল করতে হবে। তবে বিশেষ কোন পরিস্থিতিতে প্রয়োজন হলে সংশ্লিষ্ট বিভাগের পূর্বানুমতি সাপেক্ষে পূর্বে অনুসৃত ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে বিড দাখিল করা যেতে পারে। নিলামে অংশগ্রহণের বিশদ পদ্ধতিগত নির্দেশনা ইতোমধ্যে প্রাইমারি ডিলারসহ বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে পত্রযোগে জানানো হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top