শেখ কবিরকে ডিএসই’র সংবর্ধনা

DSE--SONশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিডিবিএল) চেয়ারম্যান নিযুক্ত হওয়ায় শেখ কবির হোসেনকে সংবর্ধনা দিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালনা পর্ষদ। বুধবার ডিএসইর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করেন প্রতিষ্ঠানটির  চেয়ারম্যান বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া।

বৃহস্পতিবার ডিএসইর জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শফিকুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রথমে ডিএসই’র চেয়ারম্যান সিডিবিএল চেয়ারম্যানকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। এসময় ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া বলেন, সিডিবিএল এবং দেশের পুঁজিবাজারের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সিডিবিএল পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সকল কোম্পানির সিকিউরিটিজ ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সংরক্ষণ করে এবং স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন নিষ্পত্তি করে থাকে। আপনি ফেব্রুয়ারী ২০১১ থেকে ফেব্রুয়ারী ২০১৪ পর্যন্ত ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালনা পর্ষদে প্রতিনিধিত্ব করে আপনার অভিজ্ঞতার আলোকে পুঁজিবাজারকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে আপনার অবদান ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ শ্রদ্ধাভরে স্মরণ রাখবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

তিনি বলেন,  পুঁজিবাজারের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন একজন ব্যক্তির সিডিবিএল এর চেয়ারম্যান নিযুক্ত হওয়ায় আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। আপনার দীর্ঘ কর্মময় জীবনে রয়েছে বহুমুখী অভিজ্ঞতা। বিশেষ করে বীমা খাতের উন্নয়নে আপনার অবদান অনস্বীকার্য।  আমরা আশা করি, আপনার গতিশীল নেতৃত্বে সিডিবিএল-এর আধুনিকায়ন এবং এর ব্রোকারেজ বিভিন্ন ফি এবং চার্জ বাস্তবতার নিরীখে সমন্বয়ের মাধ্যমে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সেবাদানের পেশাদারীত্বের আরো উন্নয়ন ঘটবে, যার মাধ্যমে পুঁজিবাজারের আরও প্রসার ঘটবে।

তিনি আরও বলেন, পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট সকল মহল আপনার নেতৃত্বে তাদের স্বার্থ সংরক্ষণ করে দেশের অর্থনীতির চাকাকে আরও সচল করবে এবং সিডিবিএল-এর কর্মকা- আরও গতিশীল ও কার্যকর হবে, এ প্রত্যাশা আমাদের সকলের।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সিডিবিএল-এর চেয়ারম্যান শেখ কবির হোসেন বলেন, বিএসইসি, সিডিবিএল, ডিএসই এবং সিএসই একে অপরের সাথে সম্পৃক্ত। এখানে পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে আলোচনার মাধ্যমে সকলের সুযোগ-সুবিধা দেখা সবার দায়িত্ব। দেশের পুঁজিবাজারের প্রতি জনগনের যে আস্থা রয়েছে তা যাতে ব্যাহত না হয় সেদিকে বিশেষ নজর দেয়া জরুরি। বিশেষ করে পুঁজিবাজার বর্তমানে যে অবস্থায় আছে তাকে আরও গতিময় করা এবং আধুনিকায়ন করা অত্যন্ত দরকার।

তিনি বলেন, সিডিবিএলকে এখন চিন্তা করতে হবে বিশ্ব যেভাবে আধুনিকায়ন হচ্ছে সেভাবে সিডিবিএল-কে এগিয়ে নেয়া। যাতে বিএসইসি, ডিএসই এবং সিএসই’র সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএসই’র পরিচালক মিসেস মনোয়ারা হাকিম আলী, জনাব মোঃ রুহুল আমিন, এফসিএমএ, অধ্যাপক ড. আবুল হাসেম, জনাব ওয়ালিউল ইসলাম,  অধ্যাপক ড. এম. কায়কোবাদ, ব্রি. জে. মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান, পিএসসি, জনাব মোঃ শাকিল রিজভী, জনাব মোহাম্মদ শাহজাহান, জনাব খাজা গোলাম রসুল, জনাব শরীফ আনোয়ার হোসেন, ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার বালা, এফসিএমএ এবং মহাব্যবস্থাপক ও কোম্পানি সচিব শেখ মোহাম্মদউল্লাহ, এফসিএস।

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মন্তব্য

Top