ফেব্রুয়ারিতে শীর্ষ গেইনারদের বর্তমান অবস্থা

dseশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) গত ফেব্রুয়ারি মাসে টপটেন গেইনারের তালিকায় যে সব কোম্পানি রয়েছে তাদের মধ্যে এখনো ৪ কোম্পানির দর বৃদ্ধি পাচ্ছে। আইডিএলসি ফাইন্যান্সের এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

গত মাসে সবচেয়ে বেশি দর বৃদ্ধি পাওয়া কোম্পানিগুলো হলো: প্যাসিফিক ডেনিমস (১৬৩ শতাংশ), লংকাবাংলা ফাইন্যান্স (৩২ শতাংশ), রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স (৩০.৯০ শতাংশ), জিএসপি ফাইন্যান্সের (২৯.৮০ শতাংশ), মালেক স্পিনিংয়ের (২৭.৯০ শতাংশ), আইপিডিসির (২৬.৮০ শতাংশ), এএফসি এগ্রো বায়োটিক (২৫.৪০ শতাংশ), এসিআই ফরমুলেশন (২৫.২০ শতাংশ), একটিভ ফাইন (২৩.৩০ শতাংশ) এবং সালভো কেমিক্যালে (২১.৭০ শতাংশ)। এর মধ্যে  ৬ কোম্পানির শেয়ার দর কমে গেলেও বাকী ৪ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েই চলেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, লেনদেনের প্রথম দিনে প্যাসিফিক ডেনিমসের শেয়ার দর ১০ টাকায় শুরু হলোও ২৮ ফেব্রুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ২৬.৩০ টাকায় লেনদেন হয়। সে হিসেবে কোম্পানির শেয়ার দর ১৬.৩০ টাকা বা ১৬৩ শতাংশ বেড়েছে।

এদিকে, চলতি মাসের ১৬ মার্চ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার সর্বশেষ ২৮.১০ টাকায় লেনদেন হয়। গত বৃহস্পতিবার কোম্পানির শেয়ার দর সারদিন ২৭.৪০ টাকা থেকে ২৮.২০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা গেছে কোম্পানিটির শেয়ার দর আরো বেড়েছে। কোম্পানির সর্বশেষ দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি সম্মনিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫০ টাকা।

উল্লেখ্য, প্যাসিফিক ডেনিমস গত ৭ মার্চ স্টক একচেঞ্জে লেনদেন শুরু করে। লেনদেনের প্রথমদিনেই কোম্পানির ১৭১ শতাংশ শেয়ার দর  বেড়েছিলো।

গত মাসে দর বৃদ্ধির তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানির মধ্যে লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের শেয়ার দর বেড়েছে ৩২ শতাংশ। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ৪৮ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী ৬৩.৫০ টাকায় লেনদেন হয়। এমনকি চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার সর্বশেষ ৫৯.৯০ টাকায় লেনদেন হয়। সে হিসেবে দেখা যায়ে কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। কোম্পানির ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি সম্মনিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৮৭ টাকা এবং শেয়ারহোল্ডারদের মোট ৩০ শতাংশ ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে। এর মধ্যে ১৫ শতাংশ ক্যাশ এবং ১৫ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড দিয়েছে।

রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ৩০.৯০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ২৬.৫০ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ৩৪.৭০ টাকায়। তবে চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ৩০.৯০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। কোম্পানির সর্বশেষ তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৫৪ টাকা।

জিএসপি ফাইন্যান্সের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২৯.৮০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ২৫.২০ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ৩২.৭০ টাকায়। এমনকি চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ৩৬.৬০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। কোম্পানির সর্বশেষ তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি সম্মনিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩২ টাকা।

মালেক স্পিনিংয়ের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২৭.৯০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ১৮.৩০ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ২৩.৪০ টাকায়। এমনকি চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ২৫ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। কোম্পানির সর্বশেষ দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা।

আইপিডিসি ফাইন্যান্সের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২৬.৮০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ৪২.৫০ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ৫৩.৯০ টাকায়। তবে চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ৫১.৯০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। কোম্পানির ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা। শেয়ারহোল্ডারদের জন্য কোম্পানিটি ২০ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে।

এএফসি এগ্রো বায়োটিকের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২৫.৪০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ৫০.৮০ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ৬৩.৭০ টাকায়। তবে চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ৬২.১০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। কোম্পানির সর্বশেষ দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৬৭ টাকা (restated)।

এসিআই ফরমুলেশনের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২৫.২০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ১৭২.১০ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ২১৫.৪০ টাকায়। তবে চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ২১৪.৯০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি সম্মনিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৮৩ টাকা।

একটিভ ফাইন কেমিক্যালের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২৩.৩০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ৪৩ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ৫৩ টাকায়। এমনকি চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ৫০.৯০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৬৬ টাকা।

সালভো কেমিক্যালের শেয়ার দর ফেব্রুয়ারী মাসে ২১.৭০ শতাংশ বেড়েছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল ১৮ টাকা। যা ২৮ ফেব্রুয়ারী লেনদেন হয় ২১.৯০ টাকায়। এমনকি চলতি মাসের ১৬ তারিখ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার দর সর্বশেষ ২৪.২০ টাকায় লেনদেন হয়। দেখা যাচ্ছে এ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪১ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

*

*

Top