তৃতীয় প্রান্তিকে আমরা নেটওয়ার্কের ইপিএস ২.৬২ টাকা

aamra networksশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে পুঁজিবাজারে আইপিও’র মাধ্যমে তালিকাভুক্তির অনুমোদন পাওয়া তথ্য ও প্রযুক্তি খাতের আমরা নেটওয়ার্কস লি: ২০১৬-২০১৭ হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনে জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত কোম্পানিটির ইপিএস ২.৬২ টাকা। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, ২০১৬-২০১৭ হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই’১৬-মার্চ’১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৬২ টাকা। যা এর আগের বছর ছিল ২.৫৬ টাকা। আলোচিত সময়ের ব্যবধানে কোম্পানিটির ইপিএস ২.৩৪ শতাংশ বেড়েছে। একই সময়ে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৬.২৮ টাকা। যা ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত বছর শেষে ছিল ২৩.৬৬ টাকা।

এদিকে তৃতীয় প্রান্তিকের শেষ তিন মাসে (জানুয়ারি’১৭-মার্চ’১৭) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.৮৬ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৬৮ টাকা। ইপিএস বেড়েছে ২৬.৪৭ শতাংশ।

কোম্পানিটি আরো জানায়, প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান মূলধন ৩৮ কোটি টাকা এবং শেয়ার সংখ্যা ৩ কোটি ৮০ লাখ। সে হিসেবে ২০১৬ সালে প্রথম ৬মাসে অর্থাৎ ৩০ জুন, ২০১৬ পর্যন্ত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৬৮ টাকা। যা ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৫ বছরে ছিল ৩.১৬ টাকা।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটি পরিশোধিত মূলধন বাড়াতে ২০১৩ সালে ৩৮১ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড দিয়েছিল। আর সে বছরই শেয়ারের অভিহিত মূল্য ১০০ টাকা থেকে ১০ টাকা করেছিল।

এর আগে গত ১৩ জুন বিএসইসি ৬০৬তম কমিশন সভায় কোম্পানিটিকে আইপিও’র মাধ্যমে তালিকাভুক্তির অনুমোদন দেয়। বিএসইসি জানায়, আমরা নেটওয়ার্কস লিমিটেডের ১ কোটি ৫০ লাখ ৪১ হাজার ২০৯টি সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু করে ৫৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা উত্তোলনের প্রস্তাবে অনুমোদন প্রদান করা হয়েছে। উল্লেখ্য, বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে ইলেকট্রনিক বিডিং এর মাধ্যমে কোম্পানিটির প্রতিটি ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাধারণ শেয়ারের কাট অফ প্রাইস ৩৯ টাকায় নির্ধারণ করা হয়েছে। মোট ইস্যুকৃত শেয়ারের ৬০ শতাংশ অর্থাৎ ৯০ লাখ ১৪ হাজার ৪২৩টি সাধারণ শেয়ার যোগ্য প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের অনুকূলে প্রতিটি শেয়ার ৩৯ টাকায়  ইস্যু করা হবে। সাধারন বিনিয়োগকারীদের অবশিষ্ট ৪০ শতাংশ অর্থাৎ ৬০ লাখ ২৬ হাজার ৭৮৬টি সাধারণ শেয়ার ১০ শতাংশ ডিসকাউন্টে অর্থাৎ ৩৫ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

ইলিজিবল ইনভেস্টরদের ৫০ শতাংশ শেয়ার ৬ মাসের জন্য লকইন থাকবে। এর মধ্যে ২৫ শতাংশ শেয়ার ৩ মাস পর বিক্রি করতে পারবেন। বাকি ২৫ শতাংশ শেয়ার ৬ মাস পরে বিক্রি করতে পারবেন। আর এই লকইন পিরিওড শুরু হবে কোম্পানিটির প্রসপেক্টাস অনুমোদনের পর থেকে।

কোম্পানিটি আরো জানায়, আগামী ৬ আগস্ট, ২০১৭ তারিখ থেকে আমরা নেটওয়ার্কের আইপিও আবেদন শুরু হবে। চলবে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত। আইপিও আবেদনের জন্য প্রতি ১০০ শেয়ারে ১ লট নির্ধারণ হয়েছে। যার মূল্য ৩ হাজার ৫০০ টাকা্।

আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৫৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা উত্তোলন করে ব্যাংক ঋণ পরিশোধ, ব্যবসা সম্প্রসারণ, ডাটা সেন্টার ও ওয়াই-ফাই হটস্পট স্থাপন এবং প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে।

কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে লংকাবাংলা ইনভেস্টমেন্টস লি:। রেজিস্ট্রার টু দ্যা ইস্যু আইসিবি ক্যাপিটাল ্ম্যানেজমেন্ট

উল্লেখ্য, আমরা নেটওয়ার্কস হচ্ছে ২০১৫ সালে সংশোধিত পাবলিক ইস্যু রুলসের আওতায় বিডিংয়ের জন্য অনুমোদন পাওয়া প্রথম কোম্পানি।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

 

আপনার মন্তব্য

*

*

Top