সামরিক উত্তেজনার প্রভাব আন্তর্জাতিক শেয়ারবাজারে

bse sensexশেয়ারবাজার ডেস্ক: কোনো আর্থিক কারণে নয়। হঠাৎই চূড়ান্ত অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে শেয়ার বাজার। আন্তর্জাতিক সামরিক উত্তেজনার জেরেই এই বিপত্তি। জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপের উপর দিয়ে উড়ে যাওয়া উত্তর কোরিয়ার ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র শুধু ভারতের বাজারেই নয়, মঙ্গলবার পতন ডেকে আনে বিশ্ব জুড়েই। এ দিন ক্ষয়ক্ষতি না-হলেও যুদ্ধ শুরুর ভয়ে শেয়ার কেনা থেকে হাত গুটিয়ে নেন লগ্নিকারীরা। উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের এই সিদ্ধান্ত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পাল্টা জবাবের হুঁশিয়ারিকে ঘিরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এশীয় বাজারে, যার আঁচ লাগে ভারত ও ইউরোপেও।

এ দিকে, কিমের সিদ্ধান্তে সামরিক উত্তেজনা বাড়ায় লগ্নির গন্তব্য হিসাবে সোনার গুরুত্ব বেড়েছে। ফলে বাড়ছে দামও। দিল্লিতে এ দিন প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারাট পাকা সোনা ৫৫০ টাকা বেড়ে ঠেকেছে ৩৯,৪৫০ টাকায়। কলকাতায় ৫৯০ টাকা বেড়ে ছুঁয়েছে ৩০২৭০ টাকা। বে়ড়েছে রুপোও।

এ দিন সেনসেক্স নামে ৩৬২.৪৩ পয়েন্ট। দাঁড়ায় ৩১,৩৮৮.৩৯ অঙ্কে। ১৮ জুলাইয়ের পরে সূচকটি একদিনে এত বেশি নামেনি। নিফ্‌টি ১১৬.৭৫ পয়েন্ট পড়ে থামে ৯,৭৯৬.০৫ অঙ্কে। গত ৯ মাসে একদিনে নিফ্‌টিও এতটা পড়েনি। এর আগে টানা চার দিন সূচক ওঠায় বাজার বেশ চড়াই ছিল। ফলে নতুন করে অনিশ্চয়তা তৈরি হওয়ায় লগ্নিকীদের মধ্যে লাভের টাকা তুলতে শেয়ার বিক্রির ধুম পড়ে। এর উপর বৃহস্পতিবারই চলতি মাসের আগাম লেনদেনের সেট্‌লমেন্টের দিন। ফলে অনিশ্চিত বাজারে শেয়ার ধরে রাখার পথে হাঁটেননি অনেকেই।

ডলারে টাকার দামও এ দিন ১১ পয়সা পড়েছে। এক ডলার হয়েছে ৬৪.০২ টাকা।

এ দিকে, এনটিপিসির নতুন শেয়ার কিনতে এই দিন আর্থিক সংস্থাগুলির আবেদনপত্র নেওয়া হয়। ৭,৮০০ কোটি টাকার শেয়ার কেনার জন্য আবেদন জমা পড়েছে। বুধবার থেকে সাধারণ লগ্নিকারীরা আবেদনপত্র দিতে পারবেন। প্রতিটি শেয়ারের দাম ধরা হয়েছে ১৬৮ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

*

*

Top