ফের বিএসইসির কাঠগড়ায় দাঁড়াচ্ছে কোম্পানির পরিচালকরা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর পরিচালকদের এককভাবে দুই শতাংশ এবং সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের বাধ্যতাবাধকতা রয়েছে। ২০১১ সালের ২২ নভেম্বর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) এরকম নির্দেশনার পর নির্ধারিত ছয়মাসের মধ্যে কোম্পানিগুলো শেয়ার ধারণ করতে উঠে পড়ে লেগে যায়। আবার কেউ কেউ এ বিষয়ে রিট করার কারণে শেয়ার ধারণ নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। ঐ সময়ে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যেসব পরিচালক শেয়ার ধারণে ব্যর্থ হয় তারা তাদের স্বপদ ছাড়তে বাধ্য হয়। কিন্তু এখনো বর্তমানে বেশকিছু কোম্পানির পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ করা নেই। এছাড়া এককভাবে দুই শতাংশ শেয়ার নেই এমন পরিচালকদের সংখ্যাও কম নয়। তাই পুনরায় এ বিষয়টি নিয়ে সজাগ হয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

আজ অনুষ্ঠিত বিএসইসির ৬২৯তম কমিশন সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানিসমূহের স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত সকল পরিচালকের জন্য সর্বদা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের দুই শতাংশ শেয়ার ধারণ বাধ্যতামূলক। কাজেই স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সমূহের স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত যেসকল পরিচালক কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের দুই শতাংশ শেয়ার ধারণ না করে কোম্পানির পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, তাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বিষয়টি এনফোর্সমেন্ট বিভাগে পাঠানো হবে।

এছাড়া স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানির স্পন্সর ও পরিচালকগণ সম্মিলিতভাবে সর্বদা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন, সে সকল কোম্পানির স্পন্সর ও পরিচালকগণের সম্মিলিতভাবে সর্বদা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ অবিলম্বে নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে একটি নির্দেশনা জারি করবে কমিশন।

 

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

 

আপনার মন্তব্য

Top