আতঙ্ক কাটিয়ে স্বাভাবিক ছন্দে বাজার: লেনদেন বেড়েছে ৪১ শতাংশ

শেয়ারবাজার রিপোর্টঃ দেশের রাজনৈতিক আতঙ্ক কেটে গেছে। ধীরে ধীরে শান্ত হয়ে গেছে গোটা দেশ। তাই রাজনৈতিক পরিস্থিতির প্রভাব মার্কেটে নেই। মার্কেটকে সাপোর্ট দেয়ার জন্য আইসিবি ভূমিকা বিদ্যমান রয়েছে। তবে বাজারে সৃষ্ট তারল্য সংকট কাটাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের সক্রিয় হওয়ার কোনো বিকল্প নেই বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়,  সাপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক ইতিবাচক প্রবণতা বিরাজ করছে। সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া ৫ কার্যদিবসের মধ্যে ৩দিনই বেড়েছে সূচক। বাকি দুই কার্যদিবস কমলেও এর মাত্রা ছিলো সামান্য। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের উভয় শেয়ারবাজারে প্রায় সব ধরনের সূচক বেড়েছে। এদিকে সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমান ৪১.১৭ শতাংশ বেড়েছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৫৭৯ কোটি টাকা।

সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সপ্তাহশেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ৪২ শতাংশ বা ৮৪ দশমিক ৫৭ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই৩০ সূচক বেড়েছে ০ দশমিক ২৪ শতাংশ বা ৫ দশমিক ৪৪ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ১৪ শতাংশ বা ১৫ দশমিক ৮৭ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৩৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৪১টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ৭২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির। আর লেনদেন হয়নি ১টি কোম্পানির শেয়ার। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন মোট ২ হাজার ৫৭৯ কোটি ১২ লাখ ৮৪ হাজার ৫৮৮ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ১ হাজার ৮২৬ কোটি ৯৫ লাখ ৭১ হাজার ৯৮৭ টাকার। সেই হিসাবে সমাপ্ত সপ্তাহে লেনদেন বেড়েছে ৭৫২ কোটি ১৭ লাখ ১২ হাজার ৬০১ টাকা বা ৪১ দশমিক ১৭ শতাংশ।

আর সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৮৯ দশমিক ৬২ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৬ দশমিক ১৭ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ০ দশমিক ২৫ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ৩ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

সপ্তাহশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই)সার্বিক সূচক সিএসইএক্স ১৬৮ দশমিক ১২ পয়েন্ট বা ১.৫১ শতাংশ বেড়ে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ২৯৭ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাত বদল হওয়ার ২৮৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ২২২টির, কমেছে ৪৯টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৬টির দর। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ১৩১ কোটি ১৪ লাখ ৯৭ হাজার ৭৩০ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top