ত্বকের যত্নে তুলসি পাতা!

শেয়ারবাজার ডেস্ক: তুলসি পাতার অন্দরে উপস্থিত উপকারি এনজাইম, ভিটামিন সি এবং আরও সব উপকারি উপাদান ত্বকের অন্দরে প্রবেশ করার পর কোলাজেনের উৎপাদন বাড়িয়ে দেয়। সেই সঙ্গে ত্বকের ইলাস্টিসিটির উন্নতি ঘটায়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ত্বকের সৌন্দর্য বাড়তে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে ত্বকের উজ্জলতা বাড়ে চোখে পরার মতো।

নানা কারণে ত্বক এবং শরীরের অন্দরে টক্সিক উপাদানেরা জমতে শুরু করে। আর ঠিক সময়ে যদি এই ক্ষতিকর উপাদানদের বের করে দেয়া না যায়, তাহলে কিন্তু বেজায় বিপদ। সেক্ষেত্রে একদিকে যেমন ত্বক বুড়িয়ে যেতে শুরু করে। সেই সঙ্গে শরীরও ভাঙতে শুরু করে। ফলে ছোট-বড় নানা রোগ ঘারে চেপে বসে। তাইতো ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে হলে স্কিনের অন্দরে জমতে থাকা টক্সিক উপাদানদের বের করে দিতে হবে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে তুলসি পাতা। নিয়মিত এই প্রাকৃতিক উপাদানটি খেলে রক্তে উপস্থিত টক্সিক উপাদানেরা বেরিয়ে যেতে শুরু করে। ফলে নানাবিধ ত্বকের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়।

ব্রণের প্রকোপে জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠলে পরিমাণ মতো তুলসি তেল নিয়ে তাতে চন্দন গুঁড়ো, গোলাপ জল এবং লেবুর রস মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন। তারপর তা মুখে লাগিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করুন। সময় হয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধয়ে ফেলুন। এইভাবে প্রতিদিন ত্বকের পরিচর্যা করলে দেখবেন দারুন উপকার পাবেন।

এছাড়াও অল্প পরিমাণ মুলতানি মাটির সঙ্গে পরিমাণ মতো তুলসি পাতা দিয়ে তৈরি তেল মিশিয়ে নিন। সেই সঙ্গে মেশাতে হবে মধু এবং লেবুর রস। প্রতিটি উপাদান ভাল করে মিশিয়ে নেয়ার পর মিশ্রনটি মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে মুখ ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এমনটা নিয়মিত করলে দেখবেন ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা দূর হতে সময় লাগবে না।

অল্প সময়েই ত্বক ফর্সা হয়ে উঠুক এমনটা চান নিশ্চয়। তাহলে অল্প পরিমাণ তুলসি পাতা দিয়ে তৈরি তেলের সঙ্গে অলিভ অয়েল এবং লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগাতে শুরু করুন। অল্প সময়েই দেখবেন ত্বক ফর্সা হতে শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত, হাতের কাছে যদি তুলসি পাতা না পান, তাহলে শুধুমাত্র অলিভ অয়েল এবং লেবুর রস মিশিয়েও মুখে লাগাতে পারেন। এমনটা করলেও সমান উপকার পাওয়া যায়।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top