কাল যেন আবার বিনিয়োগকারীরা এপ্রিল ফুল না হয়

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে সূচকের উত্থান যেমন চোখের পড়ার মতো ছিলো তেমনি লেনদেন বৃদ্ধির পরিমাণও ছিলো সন্তোষজনক। মার্চেন্ট ব্যাংক, সিকিউরিটিজ হাউজ,বিনিয়োগকারীসহ বাজার সংশ্লিষ্টরা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ১০৮ পয়েন্ট সূচক ও দ্বিগুন লেনদেন বৃদ্ধি দেখে বাজার নিয়ে খুবই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তারা বলছেন, বাজার তার নিজ গতিতেই আবার ঘুরে দাঁড়াবে। তবে আগামীকাল সপ্তাহের শুরুতে পুঁজিবাজারের অবস্থা যদি ইতিবাচক দেখা যায় তাহলে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরে আসবে।

এদিকে সাপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ইতিবাচক প্রবণতা বিরাজ করেছে। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া চার কার্যদিবসের ৩দিন সূচক কমেছে। বাকি ১ কার্যদিবস বাড়লেও এর মাত্র ছিলো অত্যাধিক। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের প্রধান শেয়ারবাজারে সূচক বেড়েছে। এদিকে সূচক কিছুটা বাড়লেও কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমান ২৭.৪৫ শতাংশ কমেছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৮৩ কোটি টাকা। পাশাপাশি চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) কমেছে সূচক।

সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সপ্তাহশেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক বেড়েছে ০.৩০ শতাংশ বা ১৬ দশমিক ৮৬ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ১.১৪ শতাংশ বা ২৩.৭৫ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক কমেছে ০.৫৬ শতাংশ বা ৭.৩৬ পয়েন্ট। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৪১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৯টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২০২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির। আর লেনদেন হয়নি ১টি কোম্পানির শেয়ার। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন মোট ১ হাজার ২৮৩ কোটি ৭০ লাখ ৬৩ হাজার ৮৫ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ১ হাজার ৭৬৯ কোটি ৪২ লাখ ৯০ হাজার ৭৫০ টাকার। সেই হিসাবে সমাপ্ত সপ্তাহে লেনদেন কমেছে ২৭ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

আর সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৯০ দশমিক ২৭ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ১ দশমিক ৬৯ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ১ দশমিক ১০ শতাংশ।

সপ্তাহশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই)সার্বিক সূচক সিএসইএক্স ১১ দশমিক ০৬ পয়েন্ট বা ০.১০৬২ শতাংশ কমে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৪০৩ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাত বদল হওয়ার ২৮০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ৮১টির, কমেছে ১৭৫টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির দর। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ১০৫ কোটি ৩৭ লাখ ২৭ হাজার ৮১৫ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top