আজ: শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ইং, ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৯ মে ২০১৫, শনিবার |

kidarkar

নারীদের সু-স্বাস্থ গঠনে যেসব খাবার

Womens Helthশেয়ারবাজার ডেস্ক: নারীরা সৌন্দর্য সচেতন হয়। নিজেদের ত্বক রক্ষায় তারা বেশি সময় ব্যয় করে। তবে অনেক সময়ই নিজের স্বাস্থ গঠনের প্রতি মনযোগী হয় না। তাই অগোছালো খাদ্যাভাসের মধ্যেই থাকে। যার ফলে কখনো তাদের স্বাস্থ স্থুলাকায় বা কখনো শুকিয়ে যায়। তাই সুস্বাস্থ গঠনে তাদের উচিত তাদের শরীরের গ্রহনীয় খাবার গ্রহন করা।

প্রাকৃতিকভাবে প্রাপ্ত খাদ্য ও শস্য নারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য যথেষ্ট। শুধু প্রয়োজন খাবার নিয়ে একটুখানি সচেতনতার। আমাদের দেশের অসংখ্য নারী রক্তস্বল্পতা, হাড়ের দুর্বলতা ও হরমোনের সমস্যায় ভুগছেন। অথচ একটু খাদ্যসচেতন হলেই এসব সমস্যা থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া সম্ভব হবে।

বীজজাতীয় খাবার: বীজসমৃদ্ধ খাবার নারীদের খাদ্যতালিকায় থাকা খুবই জরুরি। এসব খাবারে পুষ্টিগুণ থাকে বেশি, চর্বি থাকে কম এবং প্রয়োজনীয় আমিষের অন্যতম উত্‍স। এই গ্রুপের খাদ্যে রয়েছে প্রাকৃতিক উদ্ভিদ হরমোন যা ক্যানসার প্রতিরোধে সহায়ক। শিম, বরবটি, মটরশুঁটি ইত্যাদি প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখুন।

পাতাসমৃদ্ধ সবজি: ফলিক অ্যাসিডে ভরপুর এই জাতীয় সবজি। মহিলাদের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি ভিটামিন হলো বি। গর্ভাবস্থায় এই ভিটামিনের অভাবে হতে পারে শিশুর নিওরাল টিউব ডিফেক্ট। এতে শিশু গর্ভাবস্থায় অথবা জন্ম নেয়ার পর মারা যায়। কেউ কেউ বিকলাঙ্গ হয়ে জন্মায়। বাঁধাকপি, লেটুস পাতা, গাঢ় সবুজ পাতাওয়ালা শাকসবজি খাদ্য তালিকায় রাখুন।

হলুদ রঙের সবজি: পাকা পেঁপে, আলু, মিষ্টি কুমড়া, গাজর মেয়েদের জন্য সবচেয়ে কাছের বন্ধু! কারণ এসব খাবার নিম্নমাত্রায় ক্যালরিযুক্ত এবং উচ্চমাত্রায় বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন এ এবং প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের উপস্থিতি নিশ্চিত করে। এসব উপাদান অকাল বার্ধক্য রোধ করে, কোষ ও টিস্যুর পুনর্গঠন করে। ব্রেস্ট ক্যানসারসহ অন্যান্য ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে এই গ্রুপের খাবার।

আয়রনসমৃদ্ধ খাবার: পুরুষের তুলনায় নারীর রক্তে লোহিত রক্ত কণিকা কম থাকে। তাই নারীদের প্রয়োজন অধিক আয়রনসমৃদ্ধ খাদ্য। এক্ষেত্রে চর্বি ছাড়া লাল মাংস আয়রনের একটি বড় উৎস। উদ্ভিজ উৎসের মধ্যে রয়েছে শুকনো এপ্রিকট বা কুল জাতীয় ফল, শিম, সবুজ শাক, কলা, বীজ জাতীয় শস্য, শালগম, ওলকপি, কুমড়ার বিচি ইত্যাদি। রক্ত স্বল্পতা দূরীকরণে এসব খাবার নিয়মিত খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে।

ক্যালসিয়াম ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাদ্য: সব বয়সী নারীদের হাড় সুদৃঢ় রাখার জন্য প্রয়োজন পর্যাপ্ত পরিমাণে ক্যালসিয়াম গ্রহণ। ক্যালসিয়ামের সর্বোচ্চ দৈনিক চাহিদা হলো ১২০০ মিলিগ্রাম। ক্যালসিয়ামের অন্যতম একটি উত্‍স হলো দুধ। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার রাখুন। ম্যাগনেসিয়াম এমন এক ধরনের উপাদান যা নতুন হাড় তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই বাদাম ও বীজ জাতীয় খাবার খাদ্য তালিকায় রাখা জরুরি। বিশেষ করে গর্ভবতী নারীদের তা বিশেষভাব প্রয়োজন। কারণ এতে গর্ভস্থ শিশুর হাড় গঠন সঠিকভাবে হবে।

মাছ: তেলযুক্ত মাছ বিশেষ করে সামুদ্রিক মাছে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ওমেগা-৩ ও ভিটামিন ই। যা উচ্চ রক্তচাপ, খারাপ কোলেস্টেরল ও হৃদরোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে। এছাড়া ডিপ্রেশন, ডায়াবেটিস, বাত ও ক্যানসারের সম্ভাবনা কমায়। গর্ভস্থ শিশুর মস্তিষ্ক গঠনের জন্য এসব উপাদান খুবই জরুরি। তাই গর্ভবতী মায়েরা বিষয়টি গুরুত্বের সাথে মনে রাখুন।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.