লাদেনের দেহরক্ষী সামিকে অন্যের হাতে তুলে দিল জার্মানি

শেয়ারবাজার ডেস্ক: আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী নেটওয়ার্ক আল-কায়েদার সাবেক প্রধান ওসামা বিন লাদেনের তিউনিশীয় বংশোদ্ভূত দেহরক্ষী সামি আল-আদাউদি’কে জার্মান সরকার তিউনিসের কাছে হস্তান্তর করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তিউনিশিয়ার বিচার বিভাগের আহ্বানে সাড়া দিয়ে সম্প্রতি এই হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

তিউনিশিয়ার ‘শামস এফএম’ রেডিও জানিয়েছে, দেশটির বিচার বিভাগে দায়ের করা মামলায় আদাউদি’র বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ রয়েছে সেসবের মধ্যে রয়েছে, গোপনে আফগানিস্তানে আল-কায়েদার কাছে থেকে সামরিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ এবং জার্মানিতে উগ্র তৎপরতা পরিচালনা করা।

এ ছাড়া, তিউনিশিয়ায় চালানো একাধিক সন্ত্রাসী হামরায় আদাউদি’র সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

সামি আদাউদি ১৯৯৭ সালে তিউনিশিয়া থেকে জার্মানিতে যান এবং দেশটিতে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। তবে ১৯৯৯ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত সময়ে তিনি জার্মানিতে ছিলেন না। এ সময়ে তিনি আফগানিস্তানে গিয়ে আল-কায়েদার কাছ থেকে সামরিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে বিন লাদেনের দেহরক্ষীর দায়িত্ব পালন করেন বলে তিউনিশিয়া অভিযোগ করেছে।

তবে জার্মানির বিচার বিভাগে আদাউদি’র বিরুদ্ধে তিউনিসের আনীত অভিযোগের পক্ষে যথেষ্ট প্রমাণ পায়নি বলে তাকে এতদিন গ্রেফতার করেনি। কিন্তু সম্প্রতি তিউনিশিয়া সরকারের পীড়াপিড়িতে তাকে আটক করে তিউনিসের কাছে হস্তান্তর করেছে বার্লিন।

এর আগে লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দারনা শহর থেকে ওসামা বিন লাদেনের গাড়ি চালক আবু সুফিয়ান বিন কুমুকে আটক করে দেশটির জেনারেল খলিফা হাফতারের অনুগত সেনারা। আল-কায়েদার বেশিরভাগ যুদ্ধে বিন কুমু অংশগ্রহণ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের আবাসিক দপ্তর হোয়াইট হাউজের দাবি অনুযায়ী, ২০১১ সালে পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে হানা দিয়ে ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা করে আমেরিকার একটি বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী। পার্সটুডে

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top