আজ: বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২ইং, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, শনিবার |



kidarkar

শেয়ারবাজারে ফিরেছে আরও ছয় হাজার কোটি টাকা

শেয়ারবাজার ডেস্ক: বিদায়ী সপ্তাহে চার কার্যদিবস লেনদেন হয়েছে শেয়ারবাজারে। এর মধ্যে এক কার্যদিবস পতন হয়েছে। বাকি তিন কার্যদিবস উত্থানের ফলে সপ্তাহ শেষে দেখা গেছে শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। সূচকের সাথে বেড়েছে টাকার পরিমাণে লেনদেন এবং বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। আর উত্থানের কারণে সপ্তাহটিতে বিনিয়োগকারীরা ছয় হাজার কোটি টাকা বাজার মূলধন ফিরেছে পেয়েছে।

জানা গেছে, সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৫ লাখ ৫৭ হাজার ৫০৯ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৫ লাখ ৬৩ হাজার ৭১৫ কোটি ৬৪ লাখ ২৩ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বিনিয়োগকারীরা ছয় হাজার ২০৬ কোটি ৪৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা বাজার মূলধন ফিরে পেয়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আট হাজার ৯৩৬ কোটি ৮৯ লাখ ৫৪ হাজার ৩৪৮ টাকার লেনদেন হয়েছে। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১৩ হাজার ৪২ কোটি ৪৩ লাখ ৫৪ হাজার ৮৬৬ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন চার হাজার ১০৫ কোটি ৫৪ লাখ ৫১৮ টাকা বা ৩১ শতাংশ কমেছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১২৯.৭৪ পয়েন্ট বা ১.৮৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৯৮১.০৬ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২১.৪৬ পয়েন্ট বা ১.৪৪ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪১.৪১ পয়েন্ট ১.৭৭ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৫০৮.৬৭ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৪৯৬.৮৪ পয়েন্টে।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৭৮টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ২৪৭টির বা ৬৫.৩৪ শতাংশের, কমেছে ১১৪টির বা ৩০.১৬ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির বা ৪.৫০ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৩৪১ কোটি ৭০ লাখ ৬৩ হাজার ৪৫৮ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৫০৫ কোটি ৪০ লাখ ৯৬ হাজার ৬৬ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ১৬৩ কোটি ৭০ লাখ ৩২ হাজার ৬০৮ টাকা বা ৩২ শতাংশ কমেছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৯৭.৫০ পয়েন্ট বা ১.৯৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৩২৮.১৭ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ২৩৩.৬৮ পয়েন্ট বা ১.৯৫ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ৫৭.৭৩ পয়েন্ট বা ০.৩৯ শতাংশ, সিএসই-৫০ সূচক ২৭.০৩ পয়েন্ট বা ১.৮৮ শতাংশ এবং সিএসআই ২৭.০৮ পয়েন্ট বা ২.১৪ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২ হাজার ১৮৩.৩২ পয়েন্ট, ১৪ হাজার ৬৪৬.৭২ পয়েন্টে, এক হাজার ৪৬৫.৪৭ পয়েন্টে এবং এক হাজর ২৯৪.০৮ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ৩৪৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২১২টির বা ৬১.৮১ শতাংশের দর বেড়েছে, ১১০টির বা ৩২.০৭ শতাংশের কমেছে এবং ২১টির বা ৬.১২ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

১ টি মতামত “শেয়ারবাজারে ফিরেছে আরও ছয় হাজার কোটি টাকা”

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.