আজ: সোমবার, ২৩ মে ২০২২ইং, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ জানুয়ারী ২০২২, মঙ্গলবার |



kidarkar

ভুমধ্যসাগরে ঠান্ডায় জমে ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

শেয়ারবাজার ডেস্ক: লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ ল্যামপিডুজায় যাওয়ার পথে হাইপারথার্মিয়ায় আক্রান্ত হয়ে সাত বাংলাদেশি অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সিসিলির দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূল অ্যাগ্রিগেন্টোর কৌঁসুলি লুইগি প্যাট্রোনাগ্গিও এমন খবর দিয়েছেন।

ল্যাপিডুজার নিকটবর্তী জনবসতিহীন দ্বীপ ল্যাম্পিওয়নের উপকূল থেকে ১৮ মাইল দূরে একটি নৌকায় তাদের দেখতে পান উপকূলরক্ষীরা। পরে তাদের উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। তখন সাত বাংলাদেশির মরদেহ পাওয়া যায়।-খবর রয়টার্সের।

এ ঘটনায় অবৈধ অভিবাসী ও মানুষহত্যায় সহযোগিতার অভিযোগের তদন্তে নেমেছেন লুইগি প্যাট্রোনাগ্গিওর কার্যালয়।

হাইপারথার্মিয়া বলতে মানুষের শরীরে তাপমাত্রা কমে যাওয়াকে বোঝায়। দীর্ঘসময় ঠান্ডার মধ্যে অবস্থান করলে এমনটি ঘটতে পারে। এতে মানুষের শরীরে তাপ উৎপাদন বা শোষণের চেয়ে বিকিরণ করে বেশি। সাধারণত মানবদেহের কেন্দ্রীয় তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে চলে গেলে হাইপারথার্মিয়া হতে পারে।

ল্যামপিডুজার মেয়র সালভাদর মার্টিওলো তাদের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। এতে বলা হয়, নৌযানটিতে ২৮০

জনের বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশী ছিলেন। তাদের অধিকাংশই বাংলাদেশ ও মিসর থেকে যাওয়া।

হাজার হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী ও আশ্রয়প্রার্থীর মূল গমনপথ এখন ইউরোপীয় দেশ ইতালি। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে সেখানে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নৌকার সংখ্যাও বাড়ছে।

চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত এক হাজার ৭৫১ অভিবাসনপ্রত্যাশী ইতালির বন্দরে অবতরণ করেছেন।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.