আজ: বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার |



kidarkar

‘হাসির জাদুকর’ রাজু শ্রীবাস্তব মারা গেছেন

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা রাজু শ্রীবাস্তব মারা গেছেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির এমসে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর।

জানা যায়, গত ১০ আগস্ট হৃদরোগে আক্রান্ত হন রাজু। জিমে ট্রেডমিলে হাঁটতে হাঁটতে আচমকাই বুকে ব্যথা শুরু হয় তার। এরপরেই দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রথম দিকে অবস্থার অবনতি হলেও পরে ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছিলেন। তবে গত ১ সেপ্টেম্বর আবার শিল্পীর শারীরিক অবনতি হতে থাকে। তখন তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়।

রাজু শ্রীবাস্তব ছিলেন হাসির জাদুকর। তিনি স্টেজে এসে দাঁড়ালেই দর্শকদের মুখে হাসি ফুটে উঠত। ১৯৬৩ সালের ২৫ ডিসেম্বর কানপুরে তার জন্ম। বাবা রমেশচন্দ্র শ্রীবাস্তব ছিলেন কানপুরের প্রখ্যাত কবি। ছেলের নাম তিনি রেখেছিলেন সত্যপ্রকাশ শ্রীবাস্তব। কিন্তু রাজু নামেই ডাকতেন সবাই।

ছোটবেলা থেকেই চেনা মানুষজনের নকল করতে পারতেন রাজু। যে কোনও উপায়ে মানুষকে হাসাতে পারতেন। স্বপ্ন দেখতেন কমেডিয়ান হওয়ার। তার কৌতুক শিল্পের বেশ কদর ছিল কানপুরে। অনেকেই কারণে-অকারণে ডেকে নিতেন। কানপুরে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন রাজু। কিন্তু তার লক্ষ্য ছিল বলিউড।

বলিউডের টানেই মুম্বাইয়ে পাড়ি দেন রাজু। আশির দশকের শুরুতে আরব সাগরের তীরে পৌঁছান তিনি। সঙ্গে সঙ্গেই সিনেমায় সুযোগ পাননি। ১৯৮৮ সালে ‘তেজাব’ সিনেমায় ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া’ সিনেমাতেও ছিলেন। তারপর থেকে একাধিক সিনেমায় পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন। তবে তার কেরামতি ছিল স্টেজে।

‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ’ শোয়ের রানার-আপ ছিলেন রাজু। সেই শোতে ‘দ্য কিং অব কমেডি’ খেতাব পেয়েছিল তিনি। তার হাস্যরসের খ্যাতি দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়েছিল। অভিনেতার ‘গজোদর ভাইয়া’ চরিত্র অত্যন্ত জনপ্রিয়।

রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন রাজু। প্রথমে সমাজবাদী পার্টি তাকে ভোটে লড়ার টিকিট দিয়েছিল। কিন্তু তা ফিরিয়ে দেন রাজু। স্থানীয় নেতারা সাহায্য করছেন না বলে অভিযোগ ছিল কমেডিয়ানের। পরবর্তীতে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.