আজ: রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২ইং, ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ নভেম্বর ২০১৫, শনিবার |


kidarkar

স্পট মার্কেটে ১৮৭ কোটি টাকা লেনদেন


spotশেয়ারবাজার ডেস্ক: বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সমাপ্ত সপ্তাহে স্পট মার্কেটে ৫০ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সপ্তাহজুড়ে এসব কোম্পানি মোট ৪ কোটি ৭৫ লাখ ৭৯ হাজার ১৩৫টি শেয়ার ৫৫ হাজার ১৭ বার লেনদেন হয়েছে। যার বাজারদর ১৮৬ কোটি ৯৫ লাখ ১৩ হাজার টাকা। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

গত সপ্তাহে স্পট মার্কেটে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলো হল- আমান ফিড, বিকন ফার্মা, ড্যাফোডিল কম্পিউটারর্স, ডেস্কো, দুলামিয়া কটন, ফাইন ফুডস, ইমাম বাটন, জুট স্পিনার্স, মাইডাস ফাইন্যান্স, মিরাকেল ইন্ডাস্ট্রিজ, সমতা লেদার, শ্যামপুর সুগার, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, জাহিনটেক্স, ঝিল বাংলা, অগ্নি সিস্টেমস, আলহাজ্ব টেক্সটাইল, বিডি অটোকারর্স, বেঙ্গল উইন্ডসর, সিএনএ টেক্সটাইল, দেশবন্ধু পলিমার, দেশগার্মেন্টস, এমারাল্ড অয়েল, ফুওয়াং সিরামিক, লিবরা ইনফিউশন, মালেক স্পিনিং, এমআই সিমেন্ট, রহিম টেক্সটাইল, রেনউইক যজ্ঞেশ্বর, সাভার রিফ্যাক্টরীজ, সিঙ্গার বাংলাদেশ, ইউনাইটেড পাওয়ার, বারাকা পাওয়ার, বিডি কম, সেন্ট্রাল ফার্মা, ফুওয়াং ফুড, গোল্ডেন হার্ভেস্ট, হাক্কানী পাল্প, হা ওয়েল টেক্সটাইল, কোহিনূর কেমিক্যাল, খুলনা প্রিন্টিং, ন্যাশনাল পলিমার, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, প্রাইম টেক্সটাইল, সায়হাম টেক্সটাইল, হামিদ ফেব্রিক্স, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং, অলিম্পিক, খাঁন ব্রাদার্স এবং পাওয়ারগ্রীড।

সূত্রমতে, গত সপ্তাহে আমান ফিডের ৯ লাখ ৫৪ হাজার ৫৩৩টি শেয়ার ১ হাজার ৮৪৪ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৪ কোটি ৭৩ লাখ ৯৪ হাজার টাকা।

বিকন ফার্মার ৩৯ লাখ ১৪ হাজার ৭৭১টি শেয়ার ২ হাজার ৩৪১ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৬ কোটি ৮ লাখ ৪ হাজার টাকা।

ড্যাফোডিল কম্পিউটার্সের ১ কোটি ৬১ লাখ ৬০ হাজার ৪ শত শেয়ার ২ হাজার ৫০ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৭১ কোটি ৮৮ লাখ ২০ হাজার টাকা।

ডেস্কোর ২ লাখ ৪২ হাজার ২৫২টি শেয়ার ৫০১ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৩৭ লাখ ৪৩ হাজার টাকা।

দুলামিয়া কটনের ১৭ হাজার ৭৫৫টি শেয়ার ৪৮ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ লাখ ২৪ হাজার টাকা।

ফাইন ফুডসের ১ লাখ ৩৫ হাজার ৬৩৬টি শেয়ার ২৩০ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১১ লাখ ২৭ হাজার টাকা।

ইমাম বাটনের ১ লাখ ৫৪ হাজার ৩৯৭টি শেয়ার ২৭০ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১৩ লাখ ৯৮ হাজার টাকা।

জুট স্পিনার্সের ১ হাজার ৫৮০টি শেয়ার ২৫ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৮০ হাজার টাকা।

মাইডাস ফাইন্যান্সের ১ লাখ ৩৮ হাজার ২০৯টি শেয়ার ২৩৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২০ লাখ ৮৩ হাজার টাকা।

মিরাকেল ইন্ডাস্ট্রিজের ৭ লাখ ৩৬ হাজার ৩১৬টি শেয়ার ৭৬৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৭২ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।

সমতা লেদারের ১৬ হাজার ৮৮৮টি শেয়ার ৭১ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩ লাখ ৭৯ হাজার টাকা।

শ্যামপুর সুগারের ১৪ হাজার ১৪২টি শেয়ার ১৪ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৮৬ হাজার টাকা।

স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের ৯২ হাজার ২৮৭টি শেয়ার ২৮৬ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৫৩ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

জাহিনটেক্সের ১ লাখ ৫১ হাজার ৪৬৯টি শেয়ার ১৪৯ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩৫ লাখ ৪৮ হাজার টাকা।

ঝিল বাংলার ৯ হাজার ৫৬৫টি শেয়ার ১৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৬৫ হাজার টাকা।

অগ্নি সিস্টেমসের ৬ লাখ ৬৯ হাজার ৩৮১টি শেয়ার ৫৯৯ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৩৯ লাখ ৭৪ হাজার টাকা।

আলহাজ্ব টেক্সটাইলের ১ লাখ ৮৬ হাজার ২৭৫টি শেয়ার ১ হাজার বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২ কোটি ১ লাখ ৯৩ হাজার টাকা।

বিডি অটোকারের ২ লাখ ১৩ হাজার ৮৩টি শেয়ার ৬১৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৮৪ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

বেঙ্গল উইন্ডসরের ৪ লাখ ৯৪ হাজার ২০৮টি শেয়ার ৯৪০ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২ কোটি ৭১ লাখ ৪২ হাজার টাকা।

সিএনএ টেক্সটাইলের ৫৭ লাখ ৮২ হাজার ৬০১টি শেয়ার ২১ হাজার ৮৪৮ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৭ কোটি ১৬ লাখ ২৪ হাজার টাকা।

দেশবন্ধু পলিমারের ৬ লাখ ৫১ হাজার ২০৮টি শেয়ার ৪২৫ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৭৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

দেশ গার্মেন্টসের ৯৩ হাজার ২৭০টি শেয়ার ৭০৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৪০ লাখ ৪৯ হাজার টাকা।

এমারাল্ড অয়েলের ২৯ লাখ ৪৭ হাজার ৫৮২টি শেয়ার ২ হাজার ৭১১ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১৫ কোটি ৮৫ লাখ ৪১ হাজার টাকা।

ফু ওয়াং সিরামিকের ৫ লাখ ৬১ হাজার ৯৩০টি শেয়ার ৪২৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৭০ লাখ ১৩ হাজার টাকা।

লিবরা ইনফিউশনের ৭৯৩টি শেয়ার ৩০ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২ লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

মালেক স্পিনিংয়ের ২ লাখ ৩২ হাজার ৮৮১টি শেয়ার ২২২ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩৯ লাখ ১৮ হাজার টাকা।

এমআই সিমেন্টের ৭০ হাজার ৪১৫টি শেয়ার ৩১৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৪৬ লাখ ৯৯ হাজার টাকা।

রহিম টেক্সটাইলের ১৮ হাজার ১৯০টি শেয়ার ২৪২ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৫৫ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।

রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের ২ হাজার ৫৫টি শেয়ার ১৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৫ লাখ ১৬ হাজার টাকা।

সাভার রিফ্যাক্টরীজের ৪৩৫টি শেয়ার ১৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১৯ হাজার টাকা।

সিঙ্গার বাংলাদেশের ১ লাখ ৮১ হাজার ৭০০টি শেয়ার ৬৬৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২ কোটি ৭৮ লাখ ৪ হাজার টাকা।

ইউনাইটেড পাওয়ারের ৪ লাখ ৮ হাজার ২৪০টি শেয়ার ১ হাজার ৩৫৫ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৫ কোটি ৬৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকা।

বারাকা পাওয়ারের ১০ লাখ ৭২ হাজার ৪০৯টি শেয়ার ৭৩৫ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩ কোটি ৪০ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

বিডি কমের ৭ লাখ ৯৭৫টি শেয়ার ৫৩৫ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৬৯ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

সেন্ট্রাল ফার্মার ৭ লাখ ৫০ হাজার ৩৬টি শেয়ার ৭৫৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৬৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা।

ফু ওয়াং ফুডের ১২ লাখ ৯১ হাজার ৩৫৬টি শেয়ার ৭১৮ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২ কোটি ৪৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকা।

গোল্ডেন হার্ভেস্টের ৫ লাখ ৬৯ হাজার ৯৭৭টি শেয়ার ৬৫৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৩৫ লাখ ৮৯ হাজার টাকা।

হাক্কানী পাল্পের ১ লাখ ৭৮ হাজার ৭৬৪টি শেয়ার ৬১১ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৭৬ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।

হা ওয়েল টেক্সটাইলের ৭৯ হাজার ৪৩০টি শেয়ার ১০৯ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২৩ লাখ ৫২ হাজার টাকা।

কোহিনূর কেমিক্যালের ৬ হাজার ৫৪৪টি শেয়ার ১১৫ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২২ লাখ ৮৮ হাজার টাকা।

খুলনা প্রিন্টিংয়ের ১৩ লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৯টি শেয়ার ৬৯৪ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ৯০ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

ন্যাশনাল পলিমারের ৪ লাখ ৯৯ হাজার ৪৫৮টি শেয়ার ১ হাজার ৪৯৯ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৫ কোটি ৭ লাখ ৫৬ হাজার টাকা।

অলিম্পিক এক্সেসরিজের ১১ লাখ ৬১ হাজার ৩টি শেয়ার ১ হাজার ৮৪৯ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩ কোটি ৬৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

প্রাইম টেক্সটাইলের ১ লাখ ২৮ হাজার ১৭৮টি শেয়ার ১৯৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১৯ লাখ ৫৯ হাজার টাকা।

সায়হাম টেক্সটাইলের ১ লাখ ৬৫ হাজার ৩২৮টি শেয়ার ২০৬ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২৭ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।

হামিদ ফেব্রিক্সের ৫ লাখ ৪২ হাজার ৭৯১টি শেয়ার ৭৪৮ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ১ কোটি ২০ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের ৭ লাখ ৮৮ হাজার ৩৫৩টি শেয়ার ৯৮৪ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২ কোটি ২৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

অলিম্পিকের ৭ লাখ ৫৩ হাজার ৭২টি শেয়ার ২ হাজার ৬৭ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ২৩ কোটি ৩৫ লাখ ৪৯ হাজার টাকা।

খান ব্রাদার্সের ১৫ লাখ ৪৫ হাজার ৩৮০টি শেয়ার ৯৪৬ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩ কোটি ৭৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

এবং পাওয়ার গ্রীডের ৭ লাখ ১৬ হাজার ১৩৫টি শেয়ার ৬২৩ বার লেনদেন হয়। যার বাজার দর ৩ কোটি ৩৫ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.