আজ: মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২ইং, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৮ জুলাই ২০১৬, শুক্রবার |


kidarkar

কিডনিতে স্টোন, সময়মতো না বুঝতে পারলেই ক্যানসার…


stone-620x330শেয়ারবাজার ডেস্ক: আমাদের শরীরের সবচেয়ে জরুরি একটা অঙ্গ কিডনি। এই কিডনি অচল হয়ে পড়লে আমাদের বাঁচার সম্ভাবনাগুলোও ধীরে ধীরে ক্ষীণ হতে হতে একসময় শেষ হয়ে যায়।

এই কিডনিরই রয়েছে এমন এমন অসুখ, যা আমরা সহজে বুঝতে পারি না। যখন বোঝা যায়, তখন দেখা যায় সময় অনেক পেরিয়ে গিয়েছে। তাই আপনারও কিডনির অসুখ হয়েছে কি না, তা জেনে নিন।

আজকাল প্রায়ই পরিচিত অপরিচিত সবার কাছ থেকে কিডনিতে পাথরের কথা শোনা যায়। এই পাথর সময়ে অপারেশন করালে আমাদের বাঁচার সুযোগ থাকে। আর সময়ে বুঝতে না পারলে এই কিডনি স্টোনই ক্যানসারের রূপ ধারণ করে। এবার কী করে বুঝবেন আপনার কিডনিতে পাথর হয়েছে কি না? এরই কিছু লক্ষণ দেয়া হলো। তবে, এসব লক্ষণ দেখা দিলে অপেক্ষা না করে তৎক্ষণাত চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া দরকার।

১. কিডনিতে পাথর হলে সবার আগে আমাদের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ব্যথা হতে শুরু করে। বিশেষ করে তলপেটে অসম্ভব যন্ত্রণা দেখা দেয়।

২. যদি কিডনির পাথরের আকার বড় হয়ে যায়, তাহলে আমাদের প্রস্রাব করার সময়েও যন্ত্রণা হয়।

৩. কিডনিতে পাথর হয়েছে কি না তা বোঝার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো প্রস্রাবের অস্বাভাবিক রঙ। গোলাপি বা লাল রঙের প্রস্রাব হতে শুরু করে। কখনও কখনও প্রস্রাবের সঙ্গে রক্তও বেরোতে পারে।

৪. তলপেট এবং পাঁজরে ব্যথা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মাথা ঘোরা এবং বমিও শুরু হয়ে যায় কিডনিতে পাথর হলে। এরকম লক্ষণ দেখা দিলে অবশ্যই সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত।

৫. যখন পাথরের আকার খুব বড় হয়ে যায়, তখন আমাদের প্রস্রাবের পরিমাণও খুব কম হয়ে যায়।

শেয়ারবাজারনিউজ/মা


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.