আজ: মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২ইং, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৭ অক্টোবর ২০১৬, সোমবার |


kidarkar

তিতাস গ্যাস, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স সংকট কাটাতে বসছে বিএসইসি


bsec-bb-idraশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সম্প্রতি ঘটে যাওয়া তিতাস গ্যাস ও স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স সংক্রান্ত সংকট কাটিয়ে ওঠতে নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সাথে বৈঠকে বসছে দেশের পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিএসইসি)। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) আজ (সোমবার, ১৭ অক্টোবর) সকাল ১১টায়  বসবে সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সাথে। কথা রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকে পুঁজিবাজার ও অর্থবাজার সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সমন্বয় সভা আজ অনুষ্ঠিত হবে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর কার্যক্রমে সমন্বয় রাখতে নিয়মিত এ সভার আয়োজন করা হয়। আর এ সভায় তিতাস গ্যাস ও স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স ইস্যুতে আলোচনা করবে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, ভোক্তা পর্যায়ে তিতাস গ্যাসের দাম বাড়লেও প্রতিষ্ঠানটির আয়ের প্রধান উৎস বিতরণ চার্জ। আর এই বিতরণ চার্জ কমানোর সিদ্ধান্ত নেয় তিতাস গ্যাসের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। গত বছর ১ সেপ্টেম্বর প্রায় ৫৮ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়। এতে মুনাফা কমে যাওয়ার আশঙ্কায় সে সময় হাতে থাকা শেয়ার বিক্রি করতে শুরু করে বিনিয়োগকারীরা। বিশেষ করে বিদেশী বিনিয়োগকারীরা তাদের হাতে থাকা শেয়ার বিক্রি করে। এক পর্যায়ে তিতাস গ্যাসের শেয়ার দরে ব্যাপক পতন হয়। আর এতে বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক লোকসান গুনতে হয়েছে। যার ধারাবাহিকতায় গত নভেম্বরে টানা পতন হয় তিতাস গ্যাসের শেয়ার। পরে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। বিতরণ চার্জ কমানোর সিদ্ধান্তের কারণেই বিদেশীদের হাতে থাকা বেশির ভাগ শেয়ার বিক্রি করে দেয় বলে তদন্তে ওঠে আসে।

আগের বছর একই সময়ে পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের নিবন্ধন সনদ বাতিল করে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইডিআরএ)। এ খবরে বাজারে কোম্পানির শেয়ার দরে ব্যাপক পতন হয়। এ বিমা কোম্পানিটির নিবন্দন বাতিল সম্পর্কেও পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি কে কোনো তথ্য জানায়নি আইডিআরএ। আর এ কারণে বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখিন হয়।

বিষয়টি সম্পর্কে আইডিআরএ’র সদস্য জুবের আহমেদ খান শেয়ারবাজার নিউজকে বলেন, কোম্পানিটি লাইসেন্স ফেরত পেতে অর্থ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছে। আবেদনের প্রেক্ষিতে অর্থ মন্ত্রণালয় আইডিআরএ’র মতামত জানতে চেয়েছে। মতামত হিসেবে আইডিআরএ’র পক্ষ থেকে জানানো হয়, কোম্পানির আবেদন যদি মন্ত্রণালয় বিবেচনায় নেয় তাহলে আইডিআরএ’র কোন আপত্তি থাববে না। এর পর আবেদনের বিষয়ে কি হয়েছে তা এখনো আমরা জানিনা।

তিনি আরও বলেন, কোম্পানির পুনঃবীমা অনিয়মের কারণে নিবন্ধন সনদ বাতিল করা হয়েছে। তারা রিভিউ আবেদন করেছিল, সেটিও নাকচ করা হয়েছে। এখন কোম্পানিটি কোনো ধরনের ব্যবসা করতে পারবে না, যদি না মন্ত্রণালয় তাদের আবার ব্যবসার সুযোগ দেয়। শুধু তাদের আগের পলিসির বীমা দাবি নিষ্পত্তি করতে পারবে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, তিতাসের বিতরণ চার্জ কমানোর বিষয়ে বিইআরসি পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসিকে জানায়নি। এতে সাধারন বিনিয়োগকারীরাও বিষয়টি অজানা থেকে যায়। যখন বিনিয়োগকারীরা জানতে পারল তখন লোকসানের পাল্লা ভারী ছিল তাদের। আর এ ক্ষতি এখনো পর্যন্ত পুষিয়ে উঠতে পারেনি বিনিয়োগকারীরা। অপরদিকে বিমা নিয়ন্ত্রক সংস্থা যখন স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের নিবন্ধন বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় তখনও পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে জানানো হয়। এতেও বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখিন হয়। তাই পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর নিয়ন্ত্রক সংস্থা যাতে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে বিএসইসি কে জানায় সেসব বিষয়ে গুরুত্বারোপ করা হবে সমন্বয় সভায়। বিভিন্ন নিয়ন্ত্রক সংস্থার সমন্বয় থাকলেই বিনিয়োগকারীরা সঠিক তথ্য পাবে । এতে বিনিয়োগকারীদের ক্ষতির আশঙ্কা কমবে বলে মনে করছেন বিএসইসি।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক এবং মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান বলেন, সমন্বয় সভায় পুঁজিবাজার বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা করা হবে। বিশেষ করে বিভিন্ন নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে সমন্বয়ের বিষয়গুলো আলোচনায় উঠে আসবে।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গর্ভনর ফজলে কবিরের সভাপতিত্বে সমন্বয় সভায় পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি, বীমা খাতের নিয়ন্ত্রক আইডিআরএ এবং যৌথ মূলধনী কোম্পানিগুলোর নিবন্ধক সংস্থা আরজেএসসির প্রতিনিধিরা অংশ নিবেন বলে জানা গেছে। এটি চলতি বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিক সমন্বয় সভা।

এর আগে গত ৪ অক্টোবর বাংলাদেশ ব্যাংকের মহা ব্যবস্থাপক আবু ফারাহ মো. নাছের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রতিনিধিদের এ সভায় অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু/আ


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.