বিএনপি’র নির্বাচন বর্জনের গুজবে শেয়ারবাজারে ধস

BazarPoton_SharebazarNewsশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বিএনপি সিটি নির্বাচনে অংশ নেবে না এমন গুজবে রাজনৈতিক অস্থিরতা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কায় শেয়ারবাজারে ভয়াবহ পতন চলছে। এর জন্য কোন উদ্যোগেই পতন ঠেকানো যাচ্ছে না বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।এরই ধারাবাহিকতায় রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে উভয় শেয়ার বাজারে বছরের সর্বোচ্চ পতন হয়েছে।

এ বিষয়ে ব্রোকারেজ এসোসিয়েশনের আহবায়ক আহসানুল ইসলাম টিটু শেয়ারবাজার নিউজ ডট কমকে বলেন, সিটি নির্বাচনের প্রথম দিকে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা থাকলেও ক্রমান্বয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে হচ্ছে। এমন অবস্থায় বাজারে গুজব রটেছে যে বিএনপি সিটি নির্বাচন বর্জন করতে যাচ্ছে। যার কারণে সবার মনে আবারো আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। যার প্রত্যক্ষ প্রভাব শেয়ারবাজারের উপর পড়েছে। এরই জের ধরে বাজারের এমন ভয়াবহ পরিস্থিতি। এখন সিটি নির্বাচনের ফলাফলের উপরই নির্ভর করছে বাজার ভাল হবে কি মন্দ হবে।

এ ৫ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ব্রড ইনডেক্স ২৭৯.১৭ পয়েন্ট হারিয়েছে। অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সাধারণ সূচক ৫৮৬.৬৮ পয়েন্ট হারিয়েছে। এর পাশাপাশি উভয় স্ট এক্সচেঞ্জে পাল্লা দিয়ে লেনদেনও কমেছে।

এমন ভয়াবহ পরিস্থিতিতে আজ রোববার শুরু থেকেই ডিএসই-তে দিনভর সূচকের বড় ধরনের পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন সম্পন্ন হয়েছে। আজ ডিএসই ব্রড ইনডেক্স ৯৭.৭২ পয়েন্ট কমে গিয়ে ৪০৯৪.৪৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। মোট লেনদেন হয়েছে ৩৪১ কোটি ৫২ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসের তুলনায় আজ লেনদেন ৩৬ কোটি ১৫ লাখ টাকা কমেছে।

এদিন ডিএসইতে মোট ৩০৭টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩৭টির, কমেছে ২৪৮টির আর অপরিবর্তীত রয়েছে ২২টি কোম্পানির শেয়ার দর।

পতনের এই ধারাবাহিকতায় ডিএসই-তে ৮টি খাতে শতভাগ দরপতন ঘটেছে। এ খাতগুলো হলো: আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বিবিধ, পাট, কাগজ ও মুদ্রণ, সেবা ও আবাসন, ভ্রমন ও অবকাশ এবং টেলিকমিউনিকেশন।

এদিন ডিএসই-তে সবচেয়ে বেশি দর বেড়েছে এসিআই ফর্মুলেশন, এপেক্স ফুডস, এবিবি১ম মিউচ্যুয়াল ফান্ড, কেয়া কসমেটিকস এবং কে এন্ড কিউ।

অপরদিকে সবচেয়ে বেশি দর হারিয়েছে পপুলার লাইফ, শাশাডেনিম, এবি ব্যাংক, মডার্ন ডাইং।

এদিকে সিএসই-তেও দিনভর সূচকের পতনের মধ্যদিয়ে লেনদেন সম্পন্ন হয়েছে। এদিন সিএসই সাধারণ সূচক ১৯৩.৩৪ পয়েন্ট কমে ৭৬২১.৬৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। পাশাপাশি লেনদেন হয়েছে ৩২ কোটি ৭১ লাখ টাকা। যা আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৯ কোটি ১০ লাখ টাকা লেনদেন কমেছে।

এদিন সিএসই-তে মোট ২২৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ২৭টির দর বেড়েছে, ১৮০টির দর কমেছে এবং দর অপরিবর্তীত রয়েছে ১৬ কোম্পানির।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/তু

 

আপনার মন্তব্য

Top