আজ: রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৬ মার্চ ২০১৮, শুক্রবার |



kidarkar

তেজপাতার জাদু রূপচর্চার ক্ষেত্রেও!

শেয়ারবাজার ডেস্ক: তেজপাতা সাধারণত রান্নায় স্বাদ ও সুগন্ধ আনতে ব্যবহৃত হয়। কিন্তু, তেজপাতা শুধু রান্নাতেই জাদু আনে না, রূপচর্চার ক্ষেত্রেও তেজপাতা ব্যবহার করা যায়। যেমন রোজ তেজপাতা ফোটানো জল খেলে লাবন্য ফিরে আসে। এছাড়াও রূপচর্চায় ব্যবহৃত হয় তেজপাতা। দেখে নিন রূপচর্চায় কীভাবে ব্যবহার করবেন তেজপাতা-

১) মাথার উকুন দূর করতে-
তেজপাতা গুঁড়ো করে পানিতে ১০ মিনিট এর মত ফুটিয়ে নিন। এবার এটি ছাকনি দিয়ে ছেকে নিন। এই পানি দিয়ে মাথার তালু এবং চুলে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা পর এটি ধুয়ে ফেলুন। এটি উকুন দূর করতে বেশ কার্যকরী।

২) নরম চুল-
নরম চুল পেতে তেজপাতা ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে কিছু তেজপাতা নিন। এখন পানিতে ফুটিয়ে নিন। ১০ মিনিট ফোটার পর দেখবেন পানিতে একটা হালকা সবুজ রং চলে এসেছে। এবার এটি নামিয়ে ঠান্ডা করে নিন। এরপর স্নানের সময় এই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। দেখবেন চুল দিয়ে একটা সুন্দর গন্ধ বেড়ছে। এছাড়াও চুল কোমল হয়ে গেছে।

৩) টোনার হিসেবে ব্যবহার করুন-
তেজপাতা ত্বকের জন্যও খুব ভালো। এটিকে আপনি টোনার হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। কতগুলি তেজপাতা নিয়ে পানিতে ফুটিয়ে নিন। এবার এটি একটি বোতলে রেখে দিন। দিনে ১ বার করে ব্যবহার করুন এই পানি। এর ফলে আপনার ত্বকে কোনও চুলকানির সমস্যা থাকলে দূর হয়ে যাবে। তেমনই এর ফলে আপনার ত্বক চকচক করবে।

৪) হজমশক্তি বাড়ায়-
তেজপাতা শরীরের হজমপ্রক্রিয়াকে দ্রুত করার মাধ্যমে খাবারের পুষ্টি উপাদানগুলো ভালোভাবে পরিপাক করতে সহায়তা করে। পেটফাঁপা, বদহজম, বুক জ্বালাপোড়া ইত্যাদির চিকিৎসায় তেজপাতা ব্যবহৃত হয়ে থাকে। তেজপাতার মাধ্যমে খাবারে ঝালভাব এনে রুচি বর্ধণ করার ক্ষেত্রে উপকারী।

৫) মৃগী রোগীদের জন্য উপকারি-
বৈজ্ঞানিক মতে তেজ পাতা একধরনের অ্যাণ্টি- ইনফ্যাল্মটারী। মৃগী রোগীদের জন্য খুবই উপকারি এই তেজপাতা। মৃগী রোগীদের যখন সমস্যা দেখা দেয় তখন তেজপাতা পুড়িয়ে সেই ধোঁয়া রোগীর নাকের সামনে ধরলে ধীরে ধীরে রোগী স্বাভাবিক হয়ে ওঠে।

৬) ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে-
তেজপাতায় একধরনের ঔষুধি গুন আছে যা মাইগ্রেনের সমস্যা থেকে খুব সহজে আরাম প্রদান করে। তাছাড়া তেজপাতা শরীরে ইন্সুলিন বানাতে ও তা নিয়ন্ত্রনে রাখতে সহায়তা করে। যা ডায়বেটিসের রোগীদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে।

৭) ত্বক ও দাঁত উজ্জ্বল করতে-
তেজপাতা সিদ্ধ করুন। ঠাণ্ডা হলে তা দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ত্বক ফর্সা করার পাশাপাশি এই মিশ্রণ ব্রণ শুকাতেও সহায়ক। উজ্জ্বল দাঁত পেতে সপ্তাহে কয়েকবার দাঁতে তেজপাতা ঘষা যেতে পারে।

৮) শরীরের দুর্গন্ধ দূর করতে-
বিলাশবহুল এবং সুগন্ধিযুক্ত গোসলের জন্য মোটা অঙ্কের টাকা খরচ করার প্রয়োজন নেই। বরং এক টুকরা পরিষ্কার কাপড়ে গুঁড়া তেজপাতা কুসুম গরম পানিতে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রেখে, এই পানি দিয়ে গোসল করতে পারেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.