৮ উইকেটের পতন টাইগারদের

Cricket WCup India Bangladeshশেয়ারবাজার ডেস্ক: একাদশতম বিশ্বকাপের  কোয়াটার ফাইনালের আজকের ম্যাচে ভারতীয় দুই ওপেনার টাইগারদের মনে ভয় ধরিয়ে দিলেও সাকিব, রুবেল, মাশরাফি আর তাসকিনের আঘাতে ছয় ব্যাটসম্যানকে হারিয়েছে ৩০২ রান সংগ্রহ করেছে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ফলে ৩০৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমেছে টাইগাররা।

জবাবে ৩৩ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১২৮ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ।

 ব্যাটিং করে বাংলাদেশকে ভালো সূচনাই এনে দিয়েছিলেন তামিম ইকবাল । চারটি বাউন্ডারিতে ২৫ রান করার পর বিতর্কিত কট বিহাইন্ডে আউট হয়ে গেলেন তামিম। পরের বলেই দ্রুত রান নিতে গিয়ে রানআউট হয়ে গেলেন ইমরুল কায়েসও।

এরপর সৌম্য সরকারকে নিয়ে ৪০ রানের জুটি গড়ে ফেলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। কিন্তু ১৭তম ওভারের শেষ বলে এসে মোহাম্মদ শামির বলে একেবারে বাউন্ডারি লাইনে শিখর ধাওয়ানের হাতে ধরা পড়েন মাহমুদুল্লাহ। ক্যাচটি নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ ছিল। কারণ, ধাওয়ানের পা ওই সময় বাউন্ডারি লাইন স্পর্শ করে ফেলেছিল। কিন্তু টিভি আম্পায়ার বিষয়টা ভালোমত না দেখেই আউটের সিদ্ধান্ত দিয়ে দিলেন। ৩১ বলে ২১ রান করে আউট হয়ে গেলেন পর পর দুই সেঞ্চুরি করা এই ব্যাটসম্যান। মাহমুদুল্লাহর বিদায়ের পর ব্যাক্তিগত ২৯ রানে ফিরে যান সৌম্য সরকার। মাঠে সাকিবও স্থায়ী হতে পারলেন না। ৩৩ বলে ১০ রান করে জাদেজার বলে সামির হাতে কেচ দিয়ে সাজ ঘরে চলে যান সাকিব।

এর আগে বাংলাদেশের হয়ে বোলিং সূচনা করতে আসেন টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। আর ভারতের হয়ে ব্যাটিং উদ্বোধন করতে আসেন শিখর ধাওয়ান এবং রোহিত শর্মা। প্রথম ওভার থেকে ভারতীয় ওপেনাররা তুলে নেন ৮ রান।

ইনিংসের ১৭তম ওভারে সাকিবের ঘূর্ণি জাদুতে কুপোকাত হয়ে সাজঘরে ফেরেন ধাওয়ান। মুশফিকের স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ে ধাওয়ান আউট হওয়ার আগে করেন ৫০ বলে ৩০ রান। এরপর রুবেলের বলে মুশফিকের গ্লাভসবন্দি হয়ে ফেরেন ডেঞ্জারম্যান বিরাট কোহলি। সাজঘরে ফেরার আগে তিনি ৮ বলে করেন মাত্র ৩ রান।

শিখর ধাওয়ান আর বিরাট কোহলিকে হারানোর পর টাইগার বোলারদের সতর্ক থেকে মোকাবেলা করছিলেন রোহিত শর্মা এবং অজিঙ্কা রাহানে। তবে, ইনিংসের ২৮তম ওভারে তাসকিনের বলে সাকিবের অসাধারণ ক্যাচে সাজঘরের পথ ধরেন রাহানে। আউট হওয়ার আগে রাহানে করেন ৩৭ বলে ১৯ রান।

চলতি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালের হাইভোল্টেজ ম্যাচে মাঠে নামে বাংলাদেশ এবং ভারত। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে এ ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি।

পাওয়ার প্লে’তে (প্রথম ১০ ওভার) ভারতের দুই ওপেনার তুলে নেয় ৫১ রান। ২০ ওভার শেষে ভারতের সংগ্রহ দাঁড়ায় দুই উইকেট হারিয়ে ৮৪ রান। আর ৩০ ওভার শেষে ভারতের সংগ্রহ গিয়ে দাঁড়ায় ৩ উইকেট হারিয়ে ১২৬ রান।

বাংলাদেশ-ভারত এ অবধি ২৮বার মুখোমুখি হয়েছে, যার মধ্যে ভারতের জয় ২৪টিতে, বাংলাদেশের তিন ম্যাচে। পরিত্যক্ত হয়েছে একটি ম্যাচ। তিন জয়ের মধ্যে বাংলাদেশের দুটি জয়ই এসেছে এই মার্চ মাসে। আর বিশ্বকাপের শেষ আটের ম্যাচটিও স্বাধীনতার মাসে হওয়ায় সবটুকু শক্তি দিয়ে টাইগাররা ভারতের বিপক্ষে জয় ছিনিয়ে আনার চেষ্টা করবে।

বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মাহমুদু্ল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির আহমেদ রুম্মন, নাসির হোসেন, রুবেল হোসেন, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক) ও তাসকিন আহমেদ।

ভারত দল: মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, অজিঙ্কা রাহানে, বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না, রবিন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, মোহিত শর্মা, মোহাম্মদ সামি ও উমেশ যাদব।

আপনার মন্তব্য

Top