তিন ফরম্যাটেই আছেন আজমল

ajmolশেয়ারবাজার ডেস্ক: বেশ কিছু দিন ধরে আইসিসির সন্দেহের তালিকায় ছিল সাঈদ আজমলের বোলিং অ্যাকশন । চলছিল ব্যাপক পরীক্ষা-নিরীক্ষাও। কিন্তু সেই পরীক্ষায় আজমল বেঁচে যেতে পারেননি। গত বছরের সেপ্টেম্বরে আইসিসির নিষেধাজ্ঞার চোখে পড়েন।আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কোনো ফরম্যাটেই তার বোলিং করার সুযোগ ছিল না। নিষেধাজ্ঞার কারণে তিনি খেলতে পারেননি ১১তম বিশ্বকাপেও। আপাতত তার ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিয়েছে আইসিসি।

তবে গত আট মাস ক্রিকেটের বাইরে থেকে কী যন্ত্রণার মধ্য দিয়েই না সময় পার করছেন আজমল। সেটা বেশ ভালোভাবেই টের পেয়েছেন পাকিস্তানের এই অফস্পিনার।তিনি বললেন, ‘ক্রিকেটের বাইরে রেখে আমাকে নির্যাতন করা হয়েছে।’

আসন্ন বাংলাদেশ সফরে টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি তিন ফরম্যাটের স্কোয়াডেই জায়গা পেয়েছেন আজমল। এই সিরিজে নিজের সেরাটা ঢেলে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পুনরায় প্রত্যাবর্তনটা স্মরণীয় করতে রাখতে চাইবেন পাকিস্তানের এই তারকা বোলার। তবে নিষেধাজ্ঞায় কাটানো আটটি মাস যেভাবে কাটালেন, তার বর্ণনা দিতে গিয়ে অনেকটা আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন আজমল।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেট ছাড়া বাইরে থাকা আমার জন্য নির্যাতনের মতোই। গত আট মাসের কষ্ট আমাকে সহ্য করতে হয়েছে। এটা ছিল আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন সময়। আমি আমার পুনর্বাসন প্রক্রিয়াটি ভালোভাবেই সম্পন্ন করেছি। এ সময়ে আমার পরিবার, বন্ধু-বান্ধব, সতীর্থ ও পিসিবির সহযোগিতা পেয়েছি। আমি এখন আশাবাদী, সাবলিলভাবেই বোলিং করতে পারব। শুধরানোর পর বোলিং অ্যাকশনে আমি সাচ্ছন্দবোধ করছি। এর জন্য অবশ্য বেশ পরিশ্রম করতে হয়েছে আমাকে।’

শেয়ারবাজার/রা

 

আপনার মন্তব্য

Top