আজ: বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ইং, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৪ জুন ২০১৬, শনিবার |


kidarkar

ক্রিকেট ব্যাটের গড়ন নিয়ে নতুন বিধিনিষেধ আসছে


cricket batsশেয়ারবাজার ডেস্ক: বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল বা আইসিসি বলছে ক্রিকেট ব্যাটের সাইজের ব্যাপারে আরও কঠোর বিধিনিষেধ চালু করা হবে।

লন্ডনের লর্ডসে আইসিসি ক্রিকেট কমিটির দুদিনব্যাপী এক বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে যে ক্রিকেট ব্যাট বানানোর ক্ষেত্রে ব্যাটের গভীরতা যেহেতু বেঁধে দেওয়া নেই, তাই এমনভাবে ব্যাট তৈরি করা হচ্ছে যাতে সহজে অনেক রান তোলা সম্ভব।

ভারতের অনিল কুম্বলে এবং বিশ্বের বেশ কিছু সাবেক টেস্ট ক্রিকেটার লর্ডসের বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন যে ক্রিকেটে এখন প্রচুর রান তোলার পেছনে একটা কারণ ব্যাটের সাইজ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন ব্যাট নির্মাতারা এখন ব্যাট তৈরির ব্যাপারে এতটাই দক্ষতা অর্জন করেছেন যাতে ব্যাটের যে অংশ দিয়ে বল মারলে সহজে চার বা ছয় রান তোলা যায় সেই অংশের ব্যাপ্তি তারা বাড়িয়ে দিচ্ছেন।

ব্যাটের এই অংশটা থাকে অপেক্ষাকৃত হালকা যেটাকে বলা হয় সুইট স্পটস্”- অর্থাৎ এই অংশ দিয়ে বল হিট করলে তা দিয়ে রান স্কোর করা সহজ হয়।

ক্রিকেটের নিয়ম অনুযায়ী ব্যাটের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ বেঁধে দেওয়া আছে । হ্যান্ডেলের নিচ থেকে ব্যাট দৈর্ঘ্যে ৩৮ ইঞ্চির বেশি হতে পারবে না। ব্যাটের প্রস্থও নিয়ম অনুযায়ী সর্বোচ্চ ৪.২৫ ইঞ্চি ছাড়াতে পারবে না। কিন্তু গভীরতার ক্ষেত্রে কোনো নিয়ম বেঁধে দেওয়া নেই।

সাবেক খেলোয়াড়রা বলছেন এ কারণে আজকাল ব্যাটের সু্‌ইট স্পটস্ বাড়িয়ে এমনভাবে তৈরি করা হচ্ছে যাতে ব্যাটসম্যানদের জন্য ব্যাটের ওই নির্ধারিত অংশ ব্যবহার সহজ হয়ে গেছে।

ক্রিকেট খেলার আইন ও নিয়মকানুন দেখার সার্বিক দায়িত্ব এখনও লন্ডনের ম্যারিলিবন ক্রিকেট ক্লাব বা এমসিসির ওপর। আইসিসি ব্যাটের সাইজের ব্যাপারে নিয়মকানুন আরও কঠোর করার জন্য এমসিসির প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। তারা বলেছে ব্যাট ও বলের সামঞ্জস্য আনার জন্য নিয়মের এই পরিবর্তন প্রয়োজন।

গত বছর অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে ৩৮টি সেঞ্চুরি হয়েছে- অর্থাৎ প্রতি গেমে একটা করে সেঞ্চুরি। ছয়ের মার এসেছে ৪৬৩টি- অর্থাৎ প্রতি নয় ওভারে গড়ে একটি করে ছক্কা।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.