এক্সক্লুসিভ এর সকল সংবাদ

পুঁজিবাজারমুখী হয়েছে ৫৬৫ প্রাতিষ্ঠানিক বিও

পুঁজিবাজারমুখী হয়েছে ৫৬৫ প্রাতিষ্ঠানিক বিও

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: চলতি বছরের শুরুটা ভালো হলেও সারাবছর বার বার হোঁচট খেয়েছে পুঁজিবাজার। যখনই ঘুরে দাঁড়াতে চেষ্টা করে তখনই কোনো না নেতিবাচক ইস্যু বাজারকে প্রভাবিত করেছে। এতে পুঁজিবাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের তীব্র আস্থার সংকট তৈরি হয়। যে কারণে হতাশ হয়ে অনেক বিনিয়োগকারী পুঁজিবাজার ছেড়েছেন। ফলশ্রুতিতে গেল বছরে ২ লাখ ২ হাজার ৫৫টি ব্যক্তি বিও (বেনেফিশিয়ারি ওনার্স) অ্যাকাউন্ট

যেমন গেল ২০১৯ সালের পুঁজিবাজার

শেয়ারবাজার রিপোর্ট:  সরকারের ধারাবাহিকতা এবং দেশের অর্থনীতির সকল ক্ষেত্রেই ইতিবাচক অবস্থার মধ্য দিয়ে অনেক প্রত্যাশা নিয়ে শুরু হয় ২০১৯ সাল। নতুন বছরের শুরুতেই বাজারও গতিময় হয়ে উঠে৷ লেনদেনও হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়৷ কিন্ত তা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি৷ প্রত্যাশার সঙ্গে বাস্তবতার কোন মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি। অস্থিতিশীল ও দরপতনের মধ্য দিয়ে ২০১৯ সালের পুরো সময়ই বাজারের

মন্দাবাজারে দুর্বল কোম্পানির আধিপত্য

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বর্তমান মন্দাবাজার পরিস্থিতিতে মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে দুর্বল কোম্পানির শেয়ার দর। যদিও এসব কোম্পানির শেয়ারের দর কমা-বাড়া এক শ্রেণীর বিনিয়োগকারীদের হাতে নির্ভর করে যা ওপেন সিক্রেট। তবে ভালো শক্তিশালী মৌলভিত্তির কোম্পানির শেয়ারের অস্বাভাবিক দরপতনের মাঝে তথাকথিত লোকসানি জেড ক্যাটাগরির শেয়ারের দর বৃদ্ধি বাজারের জন্য নেতিবাচক ইঙ্গিত বহন করে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। ডিএসই

কোম্পানি অ্যানালাইসিস: ইউনাইটেড পাওয়ার

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানি ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড। ২০১৫ সালের ৫ এপ্রিল পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির পর থেকেই কোম্পানিটি একদিকে যেমন মুনাফা বাড়াচ্ছে অন্যদিকে বিনিয়োগকারীদেরও বিপুল পরিমাণ ডিভিডেন্ড দিয়ে যাচ্ছে। সম্পূর্ণ ঋণমুক্ত কোম্পানি হিসেবে ইউনাইটেড পাওয়ার দেশে বিদ্যুৎতের চাহিদা পূরণে শীর্ষে রয়েছে। নিম্নে কোম্পানির ওভারভিউ থেকে শুরু

রিংসাইনের থিউরিটিক্যাল অ্যাডজাস্টমেন্ট হচ্ছে না: সার্কিট ব্রেকার ৫০%

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা বস্ত্রখাতের রিংসাইন টেক্সটাইলস লিমিটেডের শেয়ার আগামীকাল ১২ ডিসেম্বর দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন শুরু হবে। নতুন সার্কিট ব্রেকারের নিয়মানুযায়ী আইপিও’র কোম্পানির শেয়ার লেনদেনের প্রথম দিন সার্কিট ব্রেকার ইস্যুমূল্যের ৫০ শতাংশ নির্ধারিত হবে। লেনদেনের দ্বিতীয় দিন প্রথম দিনের সর্বশেষ মূল্যের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত সার্কিট ব্রেকার কার্যকর হবে।

জুয়াড়িদের আক্রোশের শিকার শেয়ারবাজার

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: কোন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করতে মূলধন বাজারে যে ভূমিকা, বাংলাদেশের ক্যাপিটাল মার্কেট এখনো সেই ভূমিকায় ঐভাবে আসতে পারেনি। এর পেছনের বিভিন্ন কারনের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে স্বার্থান্বেষী, চতুর মহলের চাতুর্য্যপূর্ন বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত অর্থাৎ পরিকল্পনা মাফিক কিছু নির্দিষ্ট সংখ্যক শেয়ারে বিনিয়োগের মাধ্যমে সাধারন বিনিয়োগকাকারীদের বিনিয়োগ সিদ্ধান্তকে প্রভাবিত করা। সাধারণত এক্ষেত্রে জুয়াাড়িদের প্রথম পছন্দ হয়ে

ডিভিডেন্ডের ধরণ পরিবর্তন করে ফের আইন লঙ্ঘন করলো বিডি অটোকারস

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ১৫ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ডের পরিবর্তে ক্যাশ ডিভিডেন্ড প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ফের আইন লঙ্ঘন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিডি অটোকারস। জানা যায়, ৩০ জুন,২০১৯ সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য ১৫ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছিল বিডি অটোকারস। এ সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ১৫ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু নেগেটিভ রিটেইনড আর্নিংস থাকা সত্বেও স্টক ডিভিডেন্ডের সুপারিশ

৪ কোম্পানির আইপিও অর্থ ব্যবহারে কালক্ষেপন

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আইপিও অর্থ ব্যবহারে ব্যর্থ হয়েছে ৪ কোম্পানি। কোম্পানিগুলো হলো: আমান কটন ফাইব্রাস, ইন্ট্রাকো রি-ফুয়েলিং স্টেশন লিমিটেড, প্যাসিফিক ডেনিমস এবং কুইন সাউথ টেক্সটাইল। ডিএসই থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, আমান কটন ফাইব্রাস আইপিও’র মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ৮০ কোটি টাকা উত্তোলন করে। এই অর্থ ব্যবহারের শেষ সময় ছিল ৫

ফের ফোর্সসেল আতঙ্কে বিনিয়োগকারীরা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের বেশকিছু সিকিউরিটিজ হাউজ বিনিয়োগকারীদের লোন পরিশোধ করার জন্য  চিঠি পাঠাচ্ছে। পূর্বের ঋণ সমন্বয় করার জন্য অনতিবিলম্বে হাউজে টাকা জমা দিতে হবে। নগদ টাকা না থাকলে পোর্টফলিওর শেয়ার বিক্রি করতে হবে। নইলে হাউজ কর্তৃপক্ষের ইচ্ছানুযায়ী শেয়ার বিক্রি (ফোর্সসেল)করে পাওনা আদয়ে বাধ্য হবে। হাউজগুলোর এরকম চিঠি পেয়ে আতঙ্কে রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

আতঙ্ক দূর করে সব স্তরের বিনিয়োগকারীদের এগিয়ে আসা উচিত

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বর্তমানে পুঁজিবাজারে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর তলানিতে নেমে আসলেও আস্থা আর আগ্রহ সৃষ্টি হচ্ছে না। কম দরে শেয়ার কেনার পরও দর আরো কমতে সেই আতঙ্ক বেশিরভাগ বিনিয়োগকারীদের মনে বিরাজ করছে। যে কারণে বার বার ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা চললেও হোঁচট খাচ্ছে পুঁজিবাজার। তাই আতঙ্ক দূর করে বাজারকে গতিশীল করতে সব স্তরের বিনিয়োগকারীদের এগিয়ে আসা

Top